আমার কবিতা সম্পর্কে

–গোলাম কবির

আমার কবিতা গুলো ট্রে তে
রাখা
কাটা লোভনীয়
আপেলের মত সৌরভ
ছড়ায় কখনো, কোন
কোন কবিতা, কখনো
খোসা ছাড়ানো রক্তাক্ত
ডালিমের পড়ে থাকা
বেওয়ারিশ টুকরোর মত
হৃদয়ের গভীরে দুঃখ পুষে
রাখে। কোন কোন
কবিতা পড়ে কেবলি কষ্ট
বাড়ে
পাঠক হৃদয়ে আর
মাঝনদীতে নৌকার
পাটাতন ভেঙে অসহায়
ডুবে যাবার স্মৃতি
জাগানিয়া চিহৃ মনে পড়ে
যায়। কোন কোন কবিতা
শুরুতে
দারুণ প্রেমের কবিতা
লিখবো বলে ঠিক করি,
শেষে দেখি তা হয়ে আছে
জঙ্গলের মধ্যে
পড়ে থাকা কয়েকটা
চিত্রা হরীণের হাড়ের
সাথে রক্তে ভেজা
মাটিতে ফেলে যাওয়া
বাঘের পায়ের ছাপ!
প্রেমের কবিতা আর লিখা
হলো না আমার! কোন
কোন কবিতা লিখবো
বলে ভালবাসার কাছে দুই
হাঁটু মুড়ে নতজানু হয়ে
শব্দ ভিক্ষা করি, অথচ
পারিনি লিখতে তা
কখনোই, সীমান্তের
কাঁটা তারে গুলিবিদ্ধ
ফেলানীর মতই আঁটকে
থাকে শব্দেরা আমার!
কোন কোন কবিতা
আমার কখনোই আলোর
মুখ দেখে না, জন্ম নিতেই
মারা যায়! কোন
কোন কবিতা জ্যোৎস্না রাতে
গ্রামের পুকুরে পর্দানশীল
নারীর গোসলের মত
আবার কখনো তা মনে
হয় কসাইখানায় দিন
শেষে পড়ে থাকা
কয়েকটি পশুর অসহায়
কাটা মুন্ডু!