” সান্নিধ্যের আর্তনাদ “

–গোলাম কবির

মাঝে মাঝে আমার ভিতরে সান্নিধ্যের আর্তনাদ গুমরে কাঁদে মধ্যরাতে একটানা দুপুরে কোনো ডাহুক যেমন কাঁদতে থাকে।
অপেক্ষার প্রহর গুণতে গুণতে রাত্রি হয় ভোর, পাখিদের কলতান শুনে মন আমার
আরো ব্যাকুল হয়ে ওঠে তোমায় ভেবে ভেবে। কখনো কখনো ইচ্ছে হয় নিষেধের বেড়া ডিঙিয়ে নিজেই চলে যাই তোমার কাছে কিন্তু আবার অজানা ভয় এসে ভিড় করে আমার চৈতন্যে! আমি তখন নিজেকে সামলে নিয়ে তাকিয়ে দেখি আশেপাশে! কোথাও হয়তো একটা সুন্দর
রক্তিম গোলাপ ফুটে আছে গায়ে তার
কাঁটার নিরাপত্তা বেষ্টনি, কখনো হয়তো দেখতে পাই একজোড়া শালিকের খুনসুটি,
কখনো বা সবুজ ঘাসের বুকে রাতের শিশিরের কান্নার চিহ্ন। তখন নিজেকেই বলি,
এই তো তুমি আছো আমার সবখানেই,
আমার সান্নিধ্যের আর্তনাদ তখন থেমে গিয়ে বিসমিল্লাহ খাঁ’র সানাই এর মতো মধুর মনে হয়।