মেয়েরাও মানুষ

–এমদাদুল হক মিলন
দুঃখ-ভাড়ে ক্লেষ্ট আমি, সুখের দেখা কই,
বয়স আমার কত হলো দেখ্না তোরা সই।
ঐ ছুটে যাই মাঠ কি ঘাটে
খেলতে নয়তো বা নাইতে
কারও বারণ শুনি না যে,যতই বকুক সবে,
খেলাধূলায় সেরা হবো এই করেছি পন যে।
বিয়ের বয়স বলে সবাই, সে বয়স আবার কি?
খেলাধূলায় বারণ আছে এই বয়সে ধূর ছেরি।
মানিনা আমি এসব কিছু
মানবো না কখনও আমি
খেলাধূলায় বাঁধা দিলে দেবো ভব সংসার পাড়ি,
খেলা-ই জীবন খেলাতেই সুখ এ কথাটাই মানি।
আড় নয়নে তাকায় সবে আমার ফিগার দেখি,
কত্ত বড় হারামী ওরা মা বলে যদিও সদা ডাকি।
ওসব তো আল্লাহ-র ইচ্ছে
গড়েছেন তিনি যত্ন করে
যখন মা হই সবে,সন্তানের খাদ্য ওখানে জোটে,
তবুও হুশ নেই লোভাতুর নয়নে তাকিয়ে থাকে।
সবাই মানুষ হ, মিলন করে কর-জোড়ে মিনতি,
দুনিয়ার কামাই নিয়েই যেতে হবে পরকালেতে।
হিসাবে নয় মিলবে ওজনে
হয় জান্নাত নয়তো দোজখ
যে দিকে হবে পাল্লা ভাড়ি পাপ নইলে পুন্যের,
সেই হিসাবে পাবে দুঃখ কিংবা দেখা সুখের।
সময় থাকতে হও সচেতন ওহে মানব সমাজ,
তোমরা সভ্য হলেই তবে মুক্তি পাবে পাপাচার।
আয়রে তোরা জ্ঞানের পথে
অজ্ঞানে আজ চলিস নারে
এ দুনিয়া ফানা হবে দুদিন আগে নয়তো পরে,
হিসাব করে দেখো সবে আজ জ্ঞানচক্ষু খুলে।