শিরোনামহীন -৯২

–গোলাম কবির

অন্ধ রাতের নিঃস্তব্ধতার
বুক চিরে
গুমরে কাঁদে বুকের
ভিতরে বন্দী সবুজপাখি,
তুমি আসলে না, এই
অবেলায় মেঘের চাদরে
মোড়া ভোরের আকাশটা
বড্ড অচেনা মনে হয়!
মাঘের কুয়াশায় ঢেকে
যায় আমার সমস্ত পৃথিবী!
মাঝে মাঝে মাতাল
জ্যোৎস্নার প্লাবনভাসা
রাতে বাঁশঝাড়ের ফাঁকে
উঁকি দিয়ে যায় বেহায়া
চাঁদ, আমার মন কেমন
করে, উথাল পাতাল
ঢেউয়ে হৃদয়ের পাড়
ভেঙে পড়ে বার বার!
তারপর? দিন আসে রাত
যায়, হয় না দেখা
আর তোমার সাথে, কত
কাল! কত কাল!
অপেক্ষার প্রলম্বিত ছায়া
দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতম
হতে থাকে, এভাবে
একদিন বুকের জমাট
বাধা
হিমবাহ গলে নদী হলে
কি পৌঁছানো যাবে
তোমার কাছে? বলে দাও
আজ সাফ কথা,
কত দিন আর সইবো
বিরহ জ্বালা?