পাঞ্জাবের খুহাবে প্রথমবার ভোট দিলেন নারীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ): পাকিস্তান স্বাধীন হওয়ার পর পাঞ্জাবের খুহাব এলাকার একটি গ্রামের নারীরা প্রথমবারের মতো নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন । ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পরই ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে গেছেন ঘাক কল্যাণ গ্রামের নারীরা। ইতিহাস গড়েছেন খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের আপার দিরের নারী ভোটাররা। তারাও প্রথমবারের মতো ভোট দিয়েছেন।   খবর ডেইলি পাকিস্তানের।

নির্বাচনের মধ্যে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন আশা প্রকাশ করেছে যে, ব্যাপক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এই ভোটাভুটিতে রেকর্ড সংখ্যক ভোটার উপস্থিতি হবে। এরইমধ্যে বেশ কয়েকটি ইতিহাস সৃষ্টি হয়েছে। পাকিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় নারীদের ভোট দেয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। যেখানে ঘরের কাজ ছাড়া তাদের তেমন কিছু করার অনুমতিও নেই সেসব এলাকায়ও নারীরা ভোট দিতে পারছেন।

চলতি নির্বাচনে ১০ কোটি ৫০ লাখ ৯৬ হাজার নিবন্ধিত ভোটার রয়েছেন। তাদের মধ্যে প্রায় চার কোটি ৭০ লাখই নারী ভোটার। এই নির্বাচনে জাতীয় পরিষদের ২৭০টি আসন ও প্রাদেশিক পরিষদের ৫৭০টি আসনে ১২ হাজারের বেশি প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদিকে ২৩ শতাংশ ভোটার প্রথমবারের মতো তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন বিধিনিষেধের কারণে রক্ষণশীল পাকিস্তানের গ্রামাঞ্চলে নারীরা সাধারণত তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন না। যদিও এর আগে নির্বাচনগুলোতে শহরাঞ্চলে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশ সন্তোষজনক ছিল।