পাকিস্তানের নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করলেন হামিদা শহিদ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):   পাকিস্তানের আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন হামিদা শহিদ। এই নারী আসন্ন নির্বাচনে পাকিস্তান-আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী রক্ষণশীল উপজাতীয় এলাকা দির থেকে প্রার্থী হয়েছেন। হামিদা তেহরিক-এ-ইনসাফের হয়ে লড়বেন। সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হচ্ছে এই এলাকার নারীরা নির্বাচনে ভোট দিতে পারতেন না। খবর বিবিসি।

একসময় তালেবানের শক্ত ঘাঁটি ছিল দির। সেখানে মেয়েদের অধিকার ছিল খুবই কম। এমনকি তাদের ভোট দিতেও দেয়া হতো না।২০১৭ সালে দির’র এক কাউন্সিল নির্বাচনের ফলাফল গ্রহণ করতে অস্বীকার করেছিল পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন। কারণ সেখানে কোনও নারীই ভোট দেননি।

কমিশন বলেছিল, নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হতে হলে অন্তত ১০ শতাংশ নারী ভোটারকে ভোট দিতেই হবে।হামিদা শহিদ তারই সুযোগ নিয়েছেন। তিনি সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খানের দল তেহরিক-এ-ইনসাফের টিকিটে দির আসনে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন।

এ নিয়ে হামিদা শহিদ বলেন, একজন নারী যদি ভোট দিতে পারে, তাহলে সে ভোট চাইতেও পারে। এই প্রথম সেখানে একজন নারী নির্বাচনে প্রার্থী হলেন।উল্লেখ্য, আগামী ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন।

এবারের নির্বাচনে অতিরিক্ত ৩০ লাখ নারী ভোট দিতে পারবেন। কিন্তু তারপরও মনে করা হয়, এখনও ৯০ লাখের বেশি নারী রয়ে গেছেন তালিকার বাইরে।