কৃষ্ণগোপালপুরের মাসুদ রানা চাকুরীর সন্ধানে ঢাকায় গিয়ে নিখোঁজ!

 

মাহবুবুজ্জামান সেতু,নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার মাসুদ রানা (২৫) নামে এক যুবক ঢাকায় এবিসি কোম্পানীতে চাকুরীকরাবস্থায় অন্যত্র চাকুরীর সন্ধানে গিয়ে গত ৪ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। এখন পর্যন্ত তার কোন সন্ধান মিলছে না।

সন্তান নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়ার পর থেকে এলাকা এবং পরিবারের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছাঁয়া। নিখোঁজ মাসুদ রানার মায়ের আহাজারিতে আকাশ-বাতাস ভারি হয়ে উঠছে। কোন ভাবেও তার মাকে থামানো যাচ্ছে না। সন্তানকে হারিয়ে খেয়ে না খেয়ে তারা দিন পার করছেন। টেনশনে তাদের দু-চোখের ঘুম হারাম। ছেলেকে বুকে ফিরে পেতে চান তারা। ছেলেকে খুঁজে পেকে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

মাসুদ রানা মহাদেবপুর উপজেলার ৭ নং সফাপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত কৃষ্ণগোপালপুর গ্রামের মহির হাজীর বাড়ি সংলগ্ন এলাকার নাজিম দ্দিনের ছেলে।

গত ১৪ ই ডিসেম্বর (শনিবার) বেলা ১১ টার দিক থেকে নিখোঁজ হয় সে। তার পরিবারের দাবি, তাকে কেউ অপহরণ করেছে।

নিখোঁজ যুবকের পরিবার ও সূত্রে জানায়, মাসুদ রানা প্রায় দেড়,দু-মাস থেকে ঢাকার এবিসি কোম্পানীতে চাকুরী করতো। চাকুরী করাবস্থায় ঢাকা থেকে গত সপ্তাহে বাড়ি এসেছিলো। এরপর বাড়ি থেকে ফিরে গিয়ে অন্যত্র ভালো জায়গায় এবং ভালো বেতনে চাকুরীর সন্ধানে গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকা গুলশানে এবিসি কোম্পানির এমডির কাছ থেকে ২ ঘন্টার জন্য ছুটি নিয়ে ঢাকা মিরপুরে চাকুরীর ইন্টার্ভিউ দিতে যাওয়ার কথা বলে অফিস থেকে বাহিরে চলে যায় মাসুদ রানা। ওই সময় তার সাথে ছিলো ওই কোম্পানীতে কর্মরত নাজমুল নামে একজন সিকিউরিটি গার্ড। দুজনে একসাথে বের হয়ে দু’জন দু-দিকে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়ে যান তারা।

তাদের দু-জনের মোবাইলই ফোন দিয়ে বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। এরপর থেকে মাসুদ রানার আর সন্ধান মেলেনি। বিষয়টি ঢাকা গুলশান থেকে তাদেরকে গত ১৫ ডিসেম্বর (রবিবার) বেলা ১২ টার দিকে মোবাইল ফোনে জানান একই এলাকার রুন্টু, রিপন এবং আরমান । তারা বর্তমানে ওই কোম্পানীতে কর্মরত বলে জানা গেছে।

পরিবারের স্বজনরা আত্মীয় স্বজন, বন্ধু,বান্ধব ও শুভাকাঙ্খিদের বাড়িতে খোঁজ করেও তার কোন সন্ধান পাননি। মাসুদ রানার গায়ের রং শ্যামলা, উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি। পরনে ছিল শার্ট এবং জিন্স প্যান্ট । কেউ তার সন্ধান পেলে নিখোঁজ মাসুদের বাবার (০১৭৬৬-৩২৬৩৮৮) এই মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নিখোঁজ যুবকের বাবা নাজিম উদ্দিন বলেন, আমরা ধারণা আমার ছেলেটাকে কেউ অপহরণ করে নিয়ে গেছে। আজ প্রায় ৪ দিন হয়ে গেল ছেলের কোন খোঁজ পাচ্ছি না। আমি আমার ছেলের সন্ধান চাই।’

এব্যাপারে জানতে চাইলে মহাদেবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বিষয়টি অবগত নয়। তবে এঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কেউ কোন অভিযোগ করেন নাই। অভিযোগ অথবা জিডি হলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।