নারায়ণগঞ্জে এবার তিন কোটি টাকার সুতা আটক

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জে আবারো বিপুল পরিমান সুতা আটক করেছে ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশন। যার বাজার মূল্য ৩ কোটি টাকা হতে পারে। বন্ডের অপব্যবহার করে শুল্কমুক্ত কোটায় আমদানি করা কাপড় খোলাবাজারে বিক্রির অভিযোগে এ সূতা আটক করা হয়।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর)দুপুরে শহরের সূতারপাড়া এলাকায় সাদ ট্রেডার্স ও আজাদ ট্রেডার্সের গুদামে এ অভিযান চালিয়ে ৩০টন সূতা উদ্ধার করে সংস্থাটির ঢাকা কার্যালয়ের কর্মকর্তারা।

অভিযানে ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের কমিশনার এস এম হুমায়ুন কবির কমিশনারের নির্দেশনায় ডেপুটি কমিশনার রেজভী আহমেদ নেতৃত্ব দেন।

কাস্টমস বন্ড কমিশনের ঢাকা কার্যালয়ের উপ-কমিশনার রেজভি আহমেদ জানান, দেশের রপ্তানিমূখী গার্মেন্টস কারখানায় থান কাপড় তৈরির জন্য শুল্কমুক্ত সুবিধায় এসব বন্ডেড সুতা আমদানি করা হয়েছিল। এসব সুতা দিয়ে কাপড় তৈরি করে বিদেশে রপ্তানি করার কথা থাকলেও আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানটি বন্ড চুক্তি ভঙ্গ করে অবৈধভাবে নারায়ণগঞ্জের সূতার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সাদ ট্রেডার্স ও আজাদ ট্রেডার্সের কাছে উচ্চমূল্যে খোলা বাজারে বিক্রি করে দেয়। যা বন্ডের আইন অনুযায়ী সম্পূর্ণভাবে অবৈধ ও চোরা কারাবারের সামিল।

কাস্টমস বন্ডের এই কর্মকর্তা জানান, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী শুল্কমুক্ত সুবিধায় কাচাঁমাল হিসেবে সূতা আমদানি করে তা খোলা বাজারে সুলভ মূল্যে বিক্রি করে দেশীয় পোশাক ও বস্ত্রশিল্প খাতকে ক্ষতিগ্রস্থ করে আসছিলো। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে কাস্টমস ও বন্ড কমিশনের ঢাকা কার্য়্যালয়ের গোয়েন্দ তথ্যের ভিত্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নারায়ণগঞ্জের এই দুইটি সূতার গুদামে অভিযান চালানো হয়।

তিনি জানান, জব্দকৃত এসব সুতা ঢাকায় নিয়ে পরবর্তীতে তদন্ত করে আরো কি পরিমান সূতা খোলাবাজারে বিক্রি হয়েছে তা যাচাই বাছাই করে প্রতিষ্ঠান দুইটির বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে মামলা দায়ের করা হবে। তখন জড়িতদের আসামী করা হবে।

তবে কোন প্রতিষ্ঠানটি এসব সূতা আমদানি করে অবৈধভাবে খোলাবাজারে বিক্রি করে দিয়েছে সেই প্রতষ্ঠিানটির ব্যাপারে  তিনি জানান, এখন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির বিষয়ে সঠিক কোন তথ্য তাদের কাছে নেই। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কাষ্টমস বন্ড কমিশনের ঢাকা কার্য্যালয়ের উপ-পরিচালক রেজভি আহমেদ ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন সংস্থাটির সহকারি কমিশনার আল আমিন, শরীফ মোহাম্মদ ফয়সাল, আক্তার হোসেনসহ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জের সিআইডি পুলিশ এবং কাস্টমস অফিসের উর্ধতন কর্মকর্তারা।

এর আগে গত ৮ (রবিবার) ডিসেম্বর শহরের বানিজ্যিক এলাকা টানবাজারে হাজী বিল্লাল হোসেনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিসমি ইয়ার্ন ট্রেডিংয়ের গুদামে এ অভিযান চালিয়ে একই অভিযোগে এক কোটি টাকা মূল্যের ১০ টন বন্ডেড সূতা জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কাস্টমস বন্ড কমিশন। গাজীপুরের জেলার টঙ্গী উপজেলার ভাদাম এলাকায় অবস্থিত রপ্তানিমূখী গার্মেন্টস শিল্প প্রতিষ্ঠান সুপ্রভো কম্পোজিট নীট কারখানার নামে কাপড় তৈরির জন্য শুল্কমুক্ত সুবিধায় এসব বন্ডেড সুতা আমদানি করা হলেও গোপনে উচ্চমূল্যে এসব সূতা অবৈধভাবে নারায়ণগঞ্জের টানবাজারে বিসমি ইয়ার্ন ট্রেডিংয়ের কাছে বিক্রি করে দেয়। মূলত: ওই ঘটনার পর থেকেই নারায়ণগঞ্জের চোরাই সূতা ক্রয়-বিক্রয়কারি ব্যবসায়ীদের নজরদারি শুরু করে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কাস্টমস বন্ড কমিশন।