ইসলামিয়া বাজার সমিতির সভাপতি পদে মীরুকেই চায় ব্যবসায়ী মুরুব্বীরা !

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ): ১৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইসলামিয়া বাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিঃ ৩০৫ এর ত্রিবার্ষিক নির্বাচন। ১২ নভেম্বর নির্বাচনী তফসিল ঘোষনার পর উজ্জীবিত হয়ে উঠেছে ব্যবসায়ীরা ও ভোটাররা। চায়ের ষ্টল থেকে শুরু করে সবখানেই বইছে নির্বাচনী হাওয়া। 

সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে পাগলা বৌ বাজার এক অন্যরকম ভোটের আমেজ বিরাজ করছে। প্রার্থীদের সরব বিচরণ ও নানা ধরণের প্রচারণায় এই আমেজ তৈরি হয়েছে।

তবে এর মধ্যে নতূন মাত্রা যোগ হয়েছে সভাপতি প্রার্থী মীর হোসেন মীরুর নির্বাচনী মাঠে উপস্থিত না থেকেও ভোটারদের মাঝে প্রবল আগ্রহ সৃষ্টি করা। এলাকার পরিচিত মুখ কুতুবপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক ও সফল ব্যবসায়ী ও মীর হোসেন মিরু লড়ছেন বাঘ প্রতীক নিয়ে।

আসন্ন ১৮ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সভাপতি পদে জয়ী হলে নিজ দায়িত্ব ও সদস্যদের অধিকার আদায়ে দৃঢ়ভাবে কাজ করার জন্য ওয়াবদ্ধ হয়েছেন তিনি। ভোটাররাও তাকে ভোট দেয়ার দৃঢ় প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ভোটারদের সাথে কথা বলে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

ভোটারা জানিয়েছেন, মীর হোসেন মিরু দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছেন। এছাড়াও মীর হোসেন মিরু সামাজিক উন্নয়নে নানা কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। ব্যবসার পাশাপাশি তিনি সাধারণ ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষের সমস্যা সমাধানে কাজ করে আসছেন। বিশেষ করে ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত লোকজনের সমস্যা সমাধানে তিনি নিরলসভাবে কাজ করেছেন।

এই কারণে একাধিক ব্যবসায়ী সংগঠন, সামাজিক সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্বে রয়েছেন। এছাড়াও চারিত্রিক ভাবে তিনি ভালো একজন মানুষ। সব দিক মিলিয়ে তিনিই সবচেয়ে যোগ্য প্রার্থী। তাই ভোটাররা তাকে ভোট দেয়ার মনস্থির করেছেন।স্থানীয় মুরুব্বী শ্রেনীর লোকজন নির্বাচনে কাজ করছেন মীরুর পক্ষে।

কুতুবপুরের বউবাজার সমিতির নির্বাচনের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মীর হোসেন মীরুর পক্ষে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও  জমা দিয়েছেন স্থানীয় পঞ্চায়েত কমিটির নেতৃবৃন্দ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কুতুবপুরের ১৪ পঞ্চায়েতের সভাপতি মোজাফ্ফর সিং, সাধারন সম্পাদক লাল মিয়া, ফতুল্লা থানা ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক খবির উদ্দিন, ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ মালেক, বাজার কমিটির বর্তমান উপদেষ্টা ইয়াসিন মিয়া ও পাগলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যনেজিং কমিটির সদস্য আতিকুল ইসলাম খোকন।

এই নির্বাচনে ৩ জন-সভাপতি প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচিত হবেন ১ জন। তবে ৩ প্রার্থীর মধ্যে মীর হোসেন মিরু সবচেয়ে যোগ্য প্রার্থী। তাই তিনি এগিয়ে রয়েছেন।