আপনাদের প্রিয় প্রেসিডেন্ট খারাপ কিছু করেননি’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগ অস্বীকার করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমি খারাপ কিছুই করিনি। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া অডিও রেকর্ডকে কেন্দ্র করে তাঁর যৌন কেলেঙ্কারি নিয়ে যে তোলপার শুরু হয়েছে সেই প্রসঙ্গে এ কথা বলেন ট্রাম্প।

চলতি বছরের এপ্রিলে ট্রাম্পের সাবেক আইনজীবী মাইকেল কোহেনের কার্যালয়ে তল্লাশি চালিয়ে একটি গোপন অডিও টেপ পায় মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই)। গতকাল শনিবার ফাঁস হওয়া ওই অডিও টেপ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে লেখা এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প জানিয়েছেন, ‘ভাবাই যায় না যে প্রশাসন কোনো আইনজীবীর কার্যালয় ভেঙে তল্লাশি চালাতে পারে, কখনো এমন শুনিনি।’

তিনি লেখেন, ‘এর চেয়েও অবাক করা বিষয় হচ্ছে, কী করে কোনো আইনজীবী তাঁর মক্কেলের কথা গোপনে রেকর্ড করতে পারেন! এটি অবৈধ।’

এরপর মার্কিন জনগণের উদ্দেশে ট্রাম্প লেখেন, ‘তবে আনন্দের সংবাদ হচ্ছে যে আপনাদের প্রিয় প্রেসিডেন্ট খারাপ কিছু করেননি।’

ব্যাংক ও ট্যাক্স জালিয়াতি এবং ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে নির্বাচনী আইনভঙ্গের অভিযোগে ট্রাম্পের সাবেক ওই আইনজীবীর অফিসে গোপন তল্লাশির সময় অডিও টেপটি পায় এফবিআই।

জানা যায়, নির্বাচনের দুই মাস আগে সেপ্টেম্বরে রেকর্ড করা ওই অডিও টেপে ‘প্লেবয় ম্যাগাজিন’-এর সাবেক মডেল ক্যারেন ম্যাকডোগালের একটি সাক্ষাৎকারের স্বত্ব কিনে নেওয়ার ব্যাপারে আলাপ করছিলেন ট্রাম্প ও তাঁর সাবেক আইনজীবী কোহেন।

ক্যারেনের দাবি, ২০০৬ সালে ট্রাম্পের সঙ্গে এক বছর দীর্ঘস্থায়ী একটি প্রেমের সম্পর্ক ছিল তাঁর। সেই সম্পর্কের বিস্তারিত নিয়ে মার্কিন ম্যাগাজিন ‘ন্যাশনাল ইনকোয়্যারার’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারের স্বত্ব কিনে নেওয়া এবং তা ট্রাম্পের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে বিধায় প্রকাশিত হতে না দেওয়া নিয়ে কথাবার্তা হচ্ছিল তখন।

এদিকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘নিউ ইয়র্কার ম্যাগাজিন’এক প্রতিবেদনে জানায়, পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসের সঙ্গে সম্পর্ক থাকার সময়ই ক্যারেনের সঙ্গেও সম্পর্ক ছিল ট্রাম্পের।

হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে স্টর্মি ড্যানিয়েলসের সঙ্গে কোনো রকম সম্পর্কের কথা অস্বীকার করা হয়েছে। ক্যারেনের ব্যাপারে এখনও সেখান থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি। এ ব্যাপারে ক্যারেনের পক্ষ থেকেও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি বলেছেন, ‘অডিওতে অর্থ লেনদেনের বিষয়ে আলাপ থাকা মানেই এই নয় যে, তা সত্য ঘটনা। ট্রাম্পের ব্যাপারে ক্যারেনের মিথ্যা দোষারোপ ক্ষতিকর হতে পারে ভেবে সে ধাক্কা থেকে কিভাবে বাঁচা যায় তা নিয়েই আলাপ হচ্ছিল সে সময়।’

সূত্র : রয়টার্স।