সোনারগাঁয়ে ২ সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ

সোনারগাঁ(আজকের নারায়নগঞ্জ):  সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে ২ সন্তানের জননীকে (৩৫) সাহায্য দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত ধর্ষক হান্নানুর রহমান রতন (৫৭) পালিয়ে যায়।

সোমবার (১১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বেহাকৈর ব্যানডিস কারখানা এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

ধর্ষিতার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, একই এলাকার দিন মজুরের স্ত্রী ২ সন্তানের জননী ৪/৫ মাস পূর্বে ব্রেন ষ্টোক করে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। তিনি এলাকাবাসীর নিকট থেকে অর্থ সাহায্য নিয়ে চিকিৎসা করে আসছিল। ৫/৬ দিন পূর্বে ঐ ধর্ষিতার সাথে দেখা হলে তাকে অর্থ সাহায্য দেওয়ার আশ্বাস দেন হান্নানুর রহমান রতন।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় দিকে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বেহাকৈর এলাকার ব্যানডিস কারখানার পাশে রতন মিয়ার ব্যাক্তিগত অফিসের ৩য় তলার একটি কক্ষে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষন করে হুমকী ধামকী দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। পরে এ ঘটনাটি ঐ ধর্ষিতা নারী কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়্যারম্যান মোশাররফ ওমরকে জানালে তিনি থানা পুলিশকে জানায়।

প্রাথমিক তদন্তে সোনারগাঁও থানার (এসআই) সৈয়দ আজিজুল হক ঘটনা স্থলে গিয়ে তদন্ত করে ধর্ষণের আলামত পান এবং ধর্ষিত ঐ নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান।

এসআই সৈয়দ আজিজুল হক জানান, প্রাথমিক ভাবে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত ধর্ষক রতন মিয়া এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যাওয়া তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।