হারুন একজনই জন্মায়’- জেলা প্রশাসক

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্ক: সদ্য বিদায়ী এসপি হারুন অর রশীদ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন,  ‘এটা নিশ্চিত যেটা এডিশনাল এসপি মামুন আগেই বলেছেন, হারুন একজনই জন্মায়। খুব কম হারুনই জন্মাইছে। তার যেটা ভালো দিক সেটা আমরা কাজে লাগাবো। যদি তার কোন ভুল থাকে সেগুলো আমরা ক্ষমা করে দেবো। সে ভবিষ্যতেও ভালো থাকবে এই আশা করি।’

তিনি বলেছেন,‘বিদায় সবসময় সবার জন্য কষ্টদায়ক। আমার জন্য একটু বেশি কষ্টের। আমার কষ্ট দুই কারণে। বন্ধু চলে যাচ্ছে এই কারণে আর দ্বিতীয় কে আসবে সেই মধ্যবর্তী সময়ের কষ্ট।’

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে জেলা পুলিশের উদ্যোগে এসপি হারুন অর রশীদের বিদায়ী সংবর্ধনায় তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘খুব আয়োজন করে বিদায় নিচ্ছে এ বিষয়ে আমি গর্বিত, বন্ধু হিসেবে গর্বিত। সাংবাদিক ভাইরা উপস্থিত হয়ে এই অনুষ্ঠানটা আরও সুন্দর করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ বিদায়ের দিনে বেশি কথা বলবো না। যারা এই বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন তাদের কাছে অনুরোধ, আমার এই বন্ধুকে যদি ভালোবেসে থাকেন, শ্রদ্ধা করে থাকেন তাহলে সে যেসব ভালো ভালো কাজের পদক্ষেপ নিয়েছে সেগুলো আপনারা ধরে রাখবেন। আর এ ব্যাপারে আমার কাছ থেকে যেকোন প্রকারের সহযোগিতা পাবেন। নারায়ণগঞ্জের শুরু হওয়া ভালো কাজগুলো যেন চলমান থাকে এ বিষয়ে নতুন যে পুলিশ সুপার আসবেন তার কাছে অনুরোধ থাকবে।’

জসিম উদ্দিন বলেন, আমার বিদায়ী বন্ধুবর সহকর্মীর কাছে অনুরোধ আমরা এই সময়ে যদি কোন আচরণগত বা অভ্যাসগত কারণে ভুল করে থাকি তাহলে সকলের পক্ষ থেকে আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

বিদায়ী সংবর্ধনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদ্য বদলি হওয়া এসপি হারুন অর রশীদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, র‌্যাব-১১ এর সিইও কর্ণেল কাজী শামসের উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, নূরে আলম, সুবাস সাহা প্রমুখ।