বন্দরে দুই নৈশ প্রহরী খুন,২২ লাখ টাকার মালামাল লুট

আজকের নারায়নগঞ্জঃ  বন্দর উপজেলায় দুই নৈশপ্রহরীকে খুন করে তিনটি ব্যাটারির দোকানে ডাকাতি করা হয়েছে। ডাকাতরা তিনটি দোকান থেকে প্রায় ২২ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার ভোর রাতে উপজেলার লক্ষণখোলা মাদ্রসা স্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম শাহীন মণ্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এলাকাবাসী জানায়, শনিবার ভোরে বন্দর উপজেলার লক্ষণখোলা মাদ্রাসা স্ট্যান্ড এলাকায় একদল ডাকাত হানা দেয়। এসময় বাজারে ডিউটিরত নৈশপ্রহরী রায়হান (৫০) ও মোতালেব ( ৫৫) বাধা দিলে ডাকাতরা ইট দিয়ে দুইজনের মাথায় আঘাত করে। এতে তারা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

পরে ডাকাতরা সত্যতা ব্যাটারি মেলা, সত্যতা ব্যাটারি সাভিসিং ও বিসমিল্লাহ ব্যাটারি স্টোরের মালামাল লুট করে নিয়ে পালিয়ে যায়। ভোরে বাজারের পরিচ্ছন্ন কর্মী বাজার ঝাড়ু দিতে এসে দুইজনকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার করে। সংবাদ পেয়ে আশপাশের লোকজন এসে অচেতন অবস্থায় মোতালেব ও রায়হান মিয়াকে উদ্ধার করে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রায়হানকে মৃত ঘোষণা করে এবং মোতালেবকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া। পরে মোতালেবকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রায়হানউদ্দিন বন্দর উপজেলার উত্তর লক্ষনখোলা এলাকার মৃত আব্দুল সামাদের ছেলে। মোতালেব মিয়া চৌরাপাড়া এলাকার মৃত হাবিব মিয়ার ছেলে।

ডাকাতির খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অপরাধ মনিরুল ইসলাম, খ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ আলম ও বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)একেএম শাহীন মণ্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শাহীন মণ্ডল জানান, ডাকাতদের হামলায় বাজারের দুই নৈশপ্রহরী নিহত হয়েছে। তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ডাকাতির সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার ও লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।