বন্দরে মাদক সেবনে বাঁধা দেয়ায় স্কুল ছাত্রকে পিটিয়েছে সন্ত্রাসী খোকন গং

 

সংবাদদাতা,বন্দরঃ  বন্দরে মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় মারুফ ভূইঁয়া (১৭) নামে এক স্কুল ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসী খোকন ও তার সাঙ্গ-পাঙ্গরা। বুধবার সকাল ১০টায় থানার ২৩নং ওয়ার্ডস্থ চিতাশাল এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।এব্যপারে বুধবার আহতের নানী নিলুফা বেগম ৩জনকে আসামী করে বন্দর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্তরা হলেন, বন্দর রেললাইন মাইচ্ছাপাড়া এলাকার মুসা মিয়ার ছেলে মোঃখোকন(৩৬), একই এলাকার মোঃ রাজু (২৫)ও রবিন(২৪)।

পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, বন্দর রাজবাড়ি মসজিদ এলাকার কাইয়ুম ভূইয়ার ছেলে মারুফ ভূইয়া একজন স্কুল ছাত্র। সম্প্রতি আহত মারুফ বন্দর ববাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে উল্লেখিত মুসা ও তার সাঙ্গ-পাঙ্গদের মাদক আসর দেখে বাধা নিষেধ করে। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় তারা মারুফের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলার একপর্যায় তারা মারুফকে পিটিয়ে নীলাফুলা জখমসহ পরবর্তীতে তাদের এ সংক্রান্ত বিষয় ফাঁস না করার জন্য হুমকি-ধামকি প্রদর্শন করে।

এঘটনা মারুফ তার পরিবার ও স্থানীয়দের জানালে উল্লেখিত সন্ত্রাসীরা বুধবার সকালে চিতাশাল বালুর মাঠ এলাকায় মারুফকে একা পেয়ে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় চিহ্নিত মাদক সম্রাট মুসা তার হাতে থাকা কাঠের লাঠি দিয়ে মারুফে মাথায় আঘাত করে। রক্তাক্ত মাথা নিয়ে মারুফ মাটিতে লুটিয়ে পরলে সন্ত্রাসী সাঙ্গ-পাঙ্গরা হাতে থাকা লাঠি-সোটা ও লোহার লড দিয়ে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম করে।

এসময় আহতের ডাক-চিৎকারের স্থানীয়রা এগিয়ে এলে উল্লেখিত সন্ত্রাসীরা খুন-জখমের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহয়তায় আহতকে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে আনা হলে সেখানে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাসায় পাঠানো হয়। এব্যাপারে বন্দর থানায় একটি মামলা প্রস্তুতি চলছে।