প্রেসিডেন্ট রোডের হকাররা যেন প্রেসিডেন্টের মতই

শহরের চাষাড়া মোড়ের সমবায় মার্কেটে গলির নাম প্রেসিডেন্ট রোড। এখানকার হকাররা বসেনও প্রেসিডেন্টের মতই।

মার্কেটের দোকানদাররা তাদের দোকানের সামনের রাস্তা ভাড়া দেয়া শুরু করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। হকারদের কারনে রাস্তায় রিক্সাসহ অন্যান্য গাড়ির জট লেগে যায়। পথচারিরা রাস্তায় গাড়ি আর পাশে হকারদের হয়রানীর শিকার হচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

দোকানদাররা চাঁদা আদায়ের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। স্থানীয় কাউন্সিলরকে পাওয়া যায়নি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সমবায় মার্কেট ঘেঁষে চলে গেছে প্রেসিডেন্ট রোড। যা নারায়ণগঞ্জের মধ্যে একমাত্র প্রেসিডেন্ট রোড। কে বা কারা এ রোডের নাম রেখেছিল তা কেউ বলতে পারছে না। তবে কখনও কোন প্রেসিডেন্ট এ রোডে এসেছিল কিনা তাও কারো জানা নেই।

এ সড়কটির মুখে বীর দর্পে হকাররা বসে ব্যবসা চালাচ্ছেন। তাদের কারনে সন্ধ্যা হলেই মানুষ চলার জো নেই। চরম দুর্ভোগের সাথে মানুষকে চলাচল করতে হয় এ সড়কে। সেমফোনি মুঠোফোনের দোকানের সামনে থেকে শুরু করে ফ্যাশন গ্যালারী কাপড়ের দোকান, প্রীতি টেইলার্স নামে জামা কাপড় সেলাইয়ের দোকানের সামনে ঢেউটিন দিয়ে চালা করে দেয়া হয়েছে।

এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জানা গেছে, রাস্তায় হকাররা প্রতিনিয়ত পথচারিদের সাথে খারাপ আচরণ করে। সাধারণ মানুষ রিক্সার জন্য একটু চেপে হাটে আর হকাররা তাদের ব্যবসার জন্য মানুষের সাথে নিতান্ত অশোভনীয় কথা বার্তা বলে থাকে। এদিকে দোকানদারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তারা হকাদের কাছ দৈনিক হারে চাঁদা আদায় করছেন।

জানতে চাইলে এক দোকানি বলেন, চাঁদা নেয়া হচ্ছে না তবে কিছু ভাড়া নেয়া হচ্ছে।
এ বিষয়ে জানতে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাথে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি।