মদ্রিচকে সান্ত্বনা কোলিন্দা গ্র্যাবার

ক্রীড়া ডেস্কঃ  ১৭ বছরের তরুণ পেলে প্রথম টিনএজার হিসেবে গোল করেছিলেন ১৯৫৮ বিশ্বকাপের ফাইনালে। এরপর ৬০ বছরের অপেক্ষা। আর কোনো টিনএজার গোল পাননি ফাইনালে। দীর্ঘ সময় পর কিলিয়ান এমবাপে ভাঙলেন সেই দেয়াল। প্রবেশ করলেন পেলের ক্লাবে।

পুরো বিশ্বকাপে দারুণ খেলেও শেষ হাসিটা হাসা হলো না ক্রোয়েশিয়ার অধিনায়ক ‍লুকা মদ্রিচের। ফাইনালে তার দল ৪-২ গোলে হেরে গেছে ফ্রান্সের কাছে।

দলের খেলোয়াড়দের উৎসাহ যোগাতে গ্যালারিতে ছিলেন ক্রোয়েট প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্র্যাবার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অভিনন্দনের করতালি বাজাতে পারলেন না তিনি।

তাতে কী? ক্রোয়েশিয়ার মতো দলকে যে ফাইনালের মঞ্চ পর্যন্ত নিয়ে এলেন, তার কৃতিত্ব কি কম মদ্রিচ-ইভান রাকিটিচদের? সেজন্য ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে খেলোয়াড়দের বাহবা দিতে ভুললেন না গ্র্যাবার।

বিশেষ করে- দলকে এতোদূর টেনে আনতে যার কাঁধে অধিনায়কত্বের ভার ছিল বেশি, সেই মদ্রিচকে আলিঙ্গন করে সান্ত্বনাও দিতে দেখা গেলো তা