শামীম ওসমানের সমাবেশে হেলাল-সাজনু-জুয়েলের নজরকাড়া শোডাউন

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্ক: ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় শামীম ওসমানের পাশে থাকার প্রত্যয়ে মামা ভাগ্নের বিশাল শোডাউনে নজর কেড়েছে সবার। প্রতিবারের মতো এবারেও শামীম ওসমানের অন্যতম প্রধান শক্তির পরিচয় দিয়েছেন সারোয়ার পরিবারের সদস্য মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো: জুয়েল হোসেন।

শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুর ৩ টায় নগরের মিশনপাড়ায় নবাব সলিমউল্লাহ রোডে “রুখে দাড়াও স্বাধীনতা ও দেশ বিরোধী সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে” শ্লোগানে আয়োজিত সমাবেশের ডাক দেন নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান।

সমাবেশকে ঘিরে গত দুই তিন আগে থেকেই মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো: জুয়েল হোসেনের নেতৃত্বে চলে দফায় দফায় প্রস্তুতি সভা।

যার ধারাবাহিকতায় শনিবার দুপুরের পর থেকেই তাদের সমর্থিত নেতা কর্মী সমর্থকরা আর্মি মার্কেটের পিছনে জড়ো হতে থাকেন। পরে সেখান থেকে তাদের নেতৃত্বে নজরকাড়া মিছিল নিয়ে সমাবেশে এসে যোগদান করেন। যা সমাবেশে আসা মিছিলের মধ্যে অন্যতম প্রধান মিছিল ছিল হেলাল, সাজনু ও জুয়েলের নেতৃত্বে আসা মিছিলটি।

সমাবেশে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জাকিরুল আলম হেলাল বলেন, নারায়ণগঞ্জের বায়তুল আমান থেকে আওয়ামী লীগের সৃষ্টি হয়েছিলেন। নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ মানেই ওসমান পরিবার। ওসমান পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মেনে নেয়া হবে না। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে যে কোন ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

শাহাদাত হোসেন সাজনু বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে এই ষড়যন্ত্র মেনে নেয়া হবে না। আমরা শামীম ওসমানের নির্দেশের অপেক্ষায় রইলাম, তিনি যখনই নির্দেশ দিবেন ঠিক তখনই আমরা সকল ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবো। শুদ্ধি অভিযান চালাতে হবে প্রশাসনের ভেতরেও।

মো: জুয়েল হোসেন বলেন, আমরা শামীম ওসমানের সাথে অতীতে ছিলাম, বর্তমানেও আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ মানেই শামীম ওসমান।