স্বেচ্ছাসেবকদল নেতার বাড়ী থেকে মদসহ আ‘লীগ নেত্রীর ছেলে আটক

রূপগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শীলা রাণী পালের ছেলে দূর্জয়কে মদসহ আটক করা হয়েছে। শনিবার (২৪ আগস্ট) বিকেলে  জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রহমানের বাড়ীতে এ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-১।

এ সময় রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শীলা রাণী পালের ছেলে দূর্জয়কে মদসহ আটক করা হয়েছে। শীলা রাণী পাল হিন্দু সম্প্রদায়ের হয়েও কোরবানির হাটের ইজারা নিয়ে বেশ আলোচিত হয়েছিলেন। তিনি জেলা পরিষদের সদস্য। আটককৃত দূর্জয় পালের পিতার নাম রূপগঞ্জের ভুলতা এলাকার তপন পাল। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দূর্জয়ের এ কাজে তার সাথে সহযোগিতা করেন স্থানীয় মর্তুজাবাদ এলাকার নুরুলের ছেলে হারুন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে র‍্যাব-১ (সিপিসি-৩) এর মেজর আব্দুল্লাহ আল মেহেদী জানান, রুপগঞ্জ থানাধীন ভুলতা মর্তুজাবাদ দক্ষিণ পাড়ার জনৈক আসাদুল্লাহ মিয়ার বাড়ির সামনে মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী দূর্জয় পালের কাছ থেকে ২২ বোতল বিদেশী মদ, ৪৬ ক্যান বিয়ার, ৮ লিটার দেশীয় চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়। এ সময় একটি মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবৎ রূপগঞ্জ থানাধীন ভুলতা-গাউছিয়া এলাকায় বিভিন্ন প্রকারের মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করতো এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নজর এড়িয়ে মাদকের ব্যবসা করে আসছিল বলে জানিয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামির বিরুদ্ধে আইনগত কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান মেজর মেহেদী।

এ ব্যাপারে মাহাবুবুর রহমান জানান, ‘ভুলতায় তার মালিকানাধীন ভাড়া বাড়িতে কয়েকজন ভাড়াটিয়ার সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলে সেখানে আসা যাওয়া করতেন দুর্জয় পাল। এর মধ্যে একটি ঘরে হয়তো মদ বিয়ার রাখতো। এ ঘটনা খুব সম্ভবত ৩-৪দিন হতে পারে। কারণ বেশীদিনের হলে ভাড়াটিয়ারা অবহিত করতো। পরে শনিবার র‌্যাব ওই বাড়িতে হানা দিয়ে একটি রুম হতে মদ বিয়ার উদ্ধার করেছে জেনেছি। রাজধানীতে থাকার কারণে ওই বাড়ি সম্পর্কে তেমন খোঁজ খবরও নেওয়া হতো না।’