দায়িত্ববান লোকেরা দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিচ্ছেন- শামীম ওসমান

 

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ দায়িত্ববান লোকেরা দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিচ্ছেন। আমি বিষয়টি মন্ত্রনালয়কে জানানোর পরে সচিবের দ্রুত নির্দেশে শুক্রবার থেকে সংস্কার শুরু হয়েছে। কাজটি আরো অনেক আগেই হয়ে যেতো। সড়ক ও জনপথের বক্তব্য হচ্ছে এ লিংকরোডের পাশে একটি ড্রেন হচ্ছে। সিটি কর্পোরেশন কাজটি করলেও কোন অনুমতি নেয়নি। এখানে সমন্বয়হীনতার কারনে দুর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে।
এভাবেই লিংকরোডের জনদুর্ভোগের কারন ব্যাখ্যা করে নারায়নগঞ্জ-৪ আসনের এমপি একেএম শামীম ওসমান আক্ষেপের সাথে বলেন,একটি ছোট ড্রেন করতে সিটি কর্পোরেশন ৬ মাস সময় নিয়েছে। ফলে ৫ মাস আগে ওয়ার্ক অর্ডার হলেও সড়ক ও জনপথ কাজ করতে পারছে না। এটা দ্রুত করা উচিত ছিল। তারপরেও আমি কাউকে দোষারোপ করবো না। আমি আশা করবো দ্রুত ড্রেনের কাজ শেষ করবে সিটি কর্পোরেশন।
শুক্রবার দুপুরে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ লিংকরোডের চাষাঢ়া অংশের সংস্কার কাজ পরিদর্শন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়ে শামীম ওসমান বলেন,ঢাকা-নারানগঞ্জ লিংকরোড হচ্ছে একটি ব্যাস্ততম সড়ক। প্রতিিিদন লাখ লাখ মানুষ এ রুটে চলাচল করছে। ৬ মাস আগে এ রুটের সংস্কার কাজের জন্যে ১৮ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এ জন্যে আমি প্রধানমন্ত্রী ও সড়ক যোগাযোগ মন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।
এ সময় সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আলিউর হোসেন জানান,গত মার্চে ১৮ কোটি টাকার কার্যাদেশ দেয়া হয়ে। সাধারনত লিংকরোডের কয়েকশ মিটারে যানজটের সৃষ্টি হয় বেশী। আর এই স্থানটিতেই ড্রেন নির্মান করছে সিটি কর্পোরেশন। এ কাজে ধীরগতির জন্যেই এ অংশের সড়কের নির্মান কাজ হচ্ছে না।