নিখোঁজ সোনা ব্যবসায়ী প্রবীর ঘোষের টুকরো লাশ উদ্ধার,আটক ২

আজকের নারায়নগঞ্জঃ  নিখোঁজের ২২ দিনের মাথায় কালির বাজারের নিখোঁজ সোনা ব্যবসায়ী প্রবীর ঘোষের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (০৯ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কালির বাজার এলাকার ঠান্ডা মিয়ার বাড়ির সেফটি ট্যাঙ্কি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে।

লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সদর মডেল থানা পুলিশের অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম।

তিনি জানান, প্রবীর ঘোষের নিখোঁজের পর তাঁর বাবা ভোলানাথ ঘোষ সদর মডেল থানায় একটি জিডি করেন। জিডির সূত্র ধরে বাবু ও পিন্টু নামে দুই ব্যক্তিকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁদের দেখানো মতেই ঠান্ডা মিয়ার বাড়ির সেফটি ট্যাঙ্কি থেকে প্রবীর ঘোষের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে, প্রবীর ঘোষকে হত্যার পর কয়েকটি ব্যাগের মধ্যে টুকরো টুকরো করে ভরে কালির বাজার এলাকার ঠান্ডা মিয়ার বাড়িতে সেপটিক ট্যাংকে ফেলে রাখে। পরে অভিযান চালিয়ে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

১৮ জুন নিখোঁজ হয় কালির বাজার এলাকার সোনা ব্যবসায়ী প্রবীর ঘোষ। তিনি এ এলাকার ভোলানাথ জুয়েলারির মালিক। প্রবীর ঘোষের নিখোঁজের ঘটনায় তাঁর বাবা ভোলানাথ ঘোষ পরদিন ১৯ জুন সদর মডেল থানায় একটি জিডি করেন। এছাড়াও এ ঘটনায় নগরীর কালিরবাজার প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ করে কালিরবাজারের সোনা ব্যবসায়ীরা।

প্রসঙ্গত, একটি অজ্ঞাত ফোন কলের রেশ ধরে ১৮ জুন রাতের দিকে বাড়ি থেকে বের হন ভোলানাথ জুয়েলারির মালিক প্রবীর ঘোষ। এরপর থেকেই তিনি নিখোঁজ। তাঁর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও খোলা পাওয়া যায়নি। কালিরবার জুয়েলারি মালিক সমিতি ও শ্রমিক সমিতি এ নিয়ে তিনদিনের মাথায় বিক্ষোভ করে তাঁর সন্ধান দাবি করেন।

বিস্তারিত আসছে…