নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় মাওলানা আল আমিন ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

ষ্টাফ রিপোর্টার (আজকের নারায়নগঞ্জ): ফতুল্লা থানার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলায় অধ্যক্ষ মাওলানা আল আমিনকে ৫ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত।

এর আগে ফতুল্লা থানার পুলিশ আসামীকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে তোলে। পরে রিমান্ড শুনানি শেষে আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মুঞ্জুর করেন।

রোববার (১৪ জুলাই) সকালে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মিল্টন হোসেন এর আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামী হলো- মাওলানা আল আমিন কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ভূঁইয়াপাড়া এলাকার রেনু মিয়ার ছেলে।

উলেখ্য, গত ( ৭ জুলাই) ডিজিটাল নিরাপত্তা ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ মামলায় ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়ে ছিলো।
এহাজার সূত্রে জানা যায় যে, ১২ ছাত্রীকে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগে ৪ জুলাই সকালে ফতুল্লার মাহমুদপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে বাইতুল হুদা ক্যাডেট মাদ্রাসা থেকে মাওলানা আল আমিন আটক করে র‌্যাব-১১। সে সময় তার নিকট থেকে মোবাইল ও কম্পিউটার থেকে একাধিক অশ্লীল ভিডিও জব্দ করে র‌্যাব। পরবর্তীতে ফতুল্লা মডেল থানায় তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়ে। মামলা নং ১৬(৭)১৯ ও ১৭(৭)১৯।
বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) আসামীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ডিজিটাল নিরাপত্তা ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলার দায় স্বীকার করে ১৬৪ এ স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওসার আলম এর আদালতে।