পেনাল্টি আটকে সুবাসিচের নতুন রেকর্ডঃ রাশিয়ার স্বপ্ন ভঙ্গ

ক্রীড়া ডেস্ক: রাশিয়া বিশ্বকাপে শেষ দল হিসেবে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে ক্রোয়েশিয়া। স্বাগতিক রাশিয়াকে টাই ব্রেকারে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো শেষ চারে জায়গা করে নিলো ক্রোয়েটরা। এর আগে ১৯৯৮ সালে ফ্রান্স বিশ্বকাপে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ২-১ গোলে বিদায় নিতে হয় দলটিকে।
শনিবার রাতে সোচিতে এক নয়া রেকর্ড গড়লেন ক্রোয়েশিয়ার গোলকিপার ড্যানিজেল সুবাসিচ। দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ডেনমার্ককে ৩-২ গোলে হারিয়েছিল লুকা মদ্রিচের দল। ১২০ মিনিটের পরও দুই দলের স্কোর ১-১ ছিল। পরে গোলকিপার সুবাসিচ দারুণ সেভ করে দলকে উতরে দেন। ওই ম্যাচে মোট তিনটি সেভ করেছিলেন তিনি। তারপরে গতরাতে স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষেও ফের জাত চেনালেন মোনাকোর এই তারকা। পরপর দুদিন পেনাল্টি শুটে দলকে বাঁচিয়ে সেমিফাইনালে তুললেন ৩৩ বছর বয়সী গোলকিপার।

এদিন ফাইওডোর স্মোলোভের প্রথম পেনাল্টিটাই বাঁচিয়ে দেন সুবাসিচ। ফলে বিশ্বকাপে চারটি পেনাল্টি বাঁচিয়ে ছুঁয়ে ফেললেন আর্জেন্টিনার সার্জিও গোয়কোচিয়া ও পশ্চিম জার্মানির গোলকিপার হেরাল্ড শুমাখারকে। সাবেক দুই গোলকিপার নিজেদের দেশের হয়ে বিশ্বকাপে চারটি করে পেনাল্টি বাঁচিয়েছিলেন। এদিন ক্রোয়েশিয়াকে পেনাল্টি বাঁচিয়ে সেমিতে তুলে সেই দলে নাম লেখালেন সুবাসিচও।
গতরাতে ফিস্ট অলেম্পিক স্টেডিয়ামে ক্রোয়েশিয়া টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে স্বাগতিকদের বিপক্ষে জয় পায়। সেমিতে তাদের খেলতে হবে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। ১২০ মিনিটের মধ্যে ২-২ ফল হওয়ায় পেনাল্টিতে যায় ম্যাচ। সেখান থেকে ক্রোয়েশিয়া ম্যাচ জেতে জ্লাতকো দালিচের শিষ্যরা।