না‘গঞ্জ কারাগারের ফটকে সন্ত্রাসী তান্ডবে কারারক্ষী আহত,গ্রেফতার ১

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ): ওরা জোর করে কারাগারের ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করছিল,কিন্তু  বাধা পেয়ে কাররক্ষীকেই পিটিয়ে আহত করে। । পরে আরো কারারক্ষী ঘটনাস্থলে গিয়ে ধাওয়া করে আবদুল্লাহ আল মারুফ নামের এক সন্ত্রাসীকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন)বিকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের মূল ফটকের সামনে এ ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগ উঠেছে । আটক মারুফ ফতুল্লার রামারবাগ এলাকার ফজলুল আলমের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফতুল্লার গোলাম মোস্তফা-তৈয়ব গ্রুপের কয়েকজন ক্যাডার মারামারি মামলায় বৃহস্পতিবার বিকেলে কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পাওয়ার কথা। এ সময় তাদের অভ্যর্থনা জানাতে সেখানে হাজির হন অনুগামীরা। তারা কারাগারের ভেতরে যাওয়ার চেষ্টা করলে মূল ফটকে বাধা দেয় কারারক্ষীরা। কিন্তু জড়ো হওয়া লোকজন সন্ত্রাসী কায়দায় রক্ষীদের উপর হামলার চেষ্টা করে। ওই সময়ে বাদল নামের একজন কারারক্ষী আহত হয়। এক পর্যায়ে অতিরিক্ত কারারক্ষী ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে মারুফ নামের একজন আটক করলেও অন্যরা দ্রুত পালিয়ে যায়।
নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের সুপার সুভাষ ঘোষ সাংবাদিকদের জানান, একটি গ্রুপ কারা ফটকের সামনে এসে হৈ চৈ করছিল। তখন বাধা দিলে কারারক্ষীদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করে ওই লোকজন। এক পর্যায়ে বাদল নামের একজন কারারক্ষীকে মারধর করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার এস আই ফজলুল হক ঘটনারসত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কারাগারের ফটকের সামনে থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে।