রূপগঞ্জে ইমাম কর্তৃক স্কুলছাত্রী অপহরন,৫দিনেও উদ্ধার হয়নি

সংবাদদাতা,রূপগঞ্জঃ রূপগঞ্জে  মসজিদের ইমাম কর্তৃক অপহরণের ৫দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখনো উদ্ধার করতে পারেনি ৭ম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক স্কুল শিক্ষার্থীকে।   ৩০ জুন  শনিবার সকালে উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের পাইস্কা এলাকায় স্কুলে যাবার পথে অপহৃত হবার  একদিন পর  শিক্ষার্থীর মা বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।  সন্তানকে ফিরে না পেয়ে পাগলপ্রায় পরিবারের লোকজন।

পাইস্কা এলাকার সিঙ্গাপুর প্রবাসী নাছিরউদ্দিনের স্ত্রী  হাজেরা বেগম জানান, তার মেয়ে রিতু আক্তার (১২) স্থানীয় গণবাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীতে লেখাপড়া করে। সকলে সে বাড়ির পাশে পাইস্কা মধ্যেপাড়া জামে মসজিদে সকালে কোরআন শরিফও পড়া শিখতো। কোরআন শরীফ পড়া শিখতে গেলে প্রতিদিনই রিতুর সাথে উক্ত মসজিদের ইমাম মহিউদ্দিন আল হাফেজী তাকে বিভিন্ন ধরনের কু-প্রস্তাব দিতো। সে এ ঘটনা তার মাকে জানালে তিনি ইমামকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করে দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে (৩০ জুন) শনিবার রিতু গণবাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ে যাবার পথে রাস্তা থেকে মসজিদের ইমাম মহিউদ্দিন আল হাফেজীসহ তার কয়েকজন সহযোগী মিলে একটি গাড়ী যোগে জোরপূর্বক তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

খোজাখুজি করে না পেয়ে রোববার সকালে অপহৃতার মা হাজেরা বেগম বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় এক লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে অপহরণের ৫দিন অতিবাহিত হলে পুলিশ এখনো শিক্ষার্থী রিতুকে উদ্ধার করতে পারেনি। সন্তানকে ফিরে না পেয়ে পরিবারের লোকজন এখন পাগলপ্রায়।

বিষয়টি প্রেমঘটিত   উল্লেখ করে ভোলাব উপ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক সাব্বির আহমেদ বলেন, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আশা করি খুব তাড়াতাড়ি শিক্ষার্থীকে উদ্ধারসহ এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে পারবো।