প্রধানমন্ত্রী বললে নিজের জীবন দিতেও এক মুহূর্ত চিন্তা করবো না- সেলিম ওসমান

আজকের নারায়নগঞ্জঃ নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনেই ‘নৌকা চাই’ দাবি নিয়ে এবার  সাংসদ সেলিম ওসমান বলেছেন,  ‘নৌকার উপর লাঙ্গল প্রধানমন্ত্রীই তুলে দিয়েছেন’ দাবি করে সেলিম ওসমান বলেছেন, “অনেকেই বলে বেড়াচ্ছে ৫টি আসনেই ‘নৌকা চাই’। কিন্তু আমি বলবো, নির্বাচন করি বা না করি আগামীতে যেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবারও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন।”

মঙ্গলবার (০৩ জুলাই) রাতে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের দ্বিতীয় তলায় নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি-এর উদ্যোগে সংবর্ধনাত্তোর মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দিতে গিয়ে সাংসদ সেলিম ওসমান নৌকা লাঙ্গল সম্পর্কে ব্যাখ্যা করেন। সাংসদের মেইল থেকে প্রেরিত সংবাদ থেকে এ খবর পাওয়া যায়।

তিনি বলেন, “নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে নৌকা না লাঙ্গল কে আসলো সেটা বড় কথা নয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই এখানে নৌকার মধ্যে লাঙ্গল তুলে দিয়েছিলেন। তাই আগামীতে উনি কাকে এখানের দায়িত্ব দিবেন কার উপর আস্থা রাখবেন সেটা সম্পূর্ন উনার উপর নির্ভর করছে। উনি যদি আমার প্রতি আস্থা রেখে আমাকে দায়িত্ব দিতে চান, তাহলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বললে আমি নিজের জীবন দিতেও এক মুহূর্ত চিন্তা করবো না।”

তিনি দাবী করে বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের আওতায় ওয়াসা চলা উচিত। কিন্তু ওয়াসা কার কথায় চলছে তা আমি নিজেও জানি না’ মন্তব্য করার পাশাপাশি সাংসদ সেলিম ওসমান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “বন্দরের পানি সমস্যার ব্যাপারে ওয়াসার কাছে জানতে চাইলাম, উনারা বললেন ঊর্র্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে চিঠি লিখেছেন। অথচ আমি স্থানীয় সংসদ সদস্য, আমাকে অবহিত করা হয়নি, এমনকি জেলা প্রশাসকের কাছেও অনুলিপি প্রেরণ করা হয়নি। তাহলে ওয়াসার ঊর্র্ধ্বতন কর্মকর্তা কারা?”

সাংসদ আক্ষেপ নিয়ে বলেন, “আজকে যদি স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সিটি করপোরেশনের মেয়র একত্রে কাজ করতো তাহলে, এই পানির সমস্যা দ্রুত সমাধান করা সম্ভব হতো। কেননা, আমি যদি সিটি করপোরেশন এলাকায় কাজ করতে যাই, সে কাজের জন্য সিটি করপোরেশনের অনাপত্তির দরকার হবে। এতে করে উন্নয়ণ কাজ বিলম্বিত হবে।”

নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল এর সভাপতিত্বে ওই সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক প্রবীর কুমার সাহা, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এম সোলায়মান, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা জাতীয় পার্টির সভাপতি মজিবর রহমান, বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল।