রূপগঞ্জে উদ্ধারকৃত নারীর লাশ সনাক্ত,স্বামী আটক

রূপগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): গত বৃহস্পতিবার(৬জন) সকালে রূপগঞ্জে উদ্ধাকৃত অজ্ঞাত মৃত নারীর পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম হাসি আক্তার। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ইউপি সদস্য ইলিয়াস সরকারকে শনিবার(৮জুন) সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোড থেকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত হাসি আক্তার শরীয়তপুরের পালং থানার তুলাশরের সেকান্দর আলীর মেয়ে। আটক ইলিয়াস সরকার আড়াইহাজার থানার হাইজাদি ইউপির ৬ নং ওয়ার্ডের সদস্য।

নিহতের বড় ভাই খোরশেদ আলম বাবু বলেন, আট মাস আগে হাসি আক্তারের সঙ্গে ইলিয়াছের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তার আরেক স্ত্রীর কথা জানা যায়। এরপর সে শাহাজাদপুরে হাসিকে নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকতো।

কয়েকমাস ধরে প্রথম স্ত্রীকে নিয়ে হাসিকে নির্যাতন করতো বোন জামাই। এ ঘটনাগুলো হাসি আমাকে জানায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসির মৃত্যুর খবর পেয়ে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করি।

ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই নুরে আলম সিদ্দিকী বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে শিংলাবো উত্তরপাড়া ক্যানেল পাড় থেকে এক অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহটি নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছিলো।সেখানে মৃতের ছবি ও মর্গে লাশ দেখে নিহতের বড় ভাই খোরশেদ আলম জানান যে এটার তার বোন হাসি আক্তারের লাশ।

তিনি আরো জানান ইলিয়াছ সরকার ও তার প্রথম স্ত্রী তার বোন হাসি আক্তারকে হত্যা করে রাস্তার ফেলে রেখে যায়।

মরদেহের গলায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করেছে। শুক্রবার সকালে মরদেহের পরিচয় সনাক্ত হয়।

রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বলেন, স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় আটক স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।