আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগে ঈদে যাত্রায় ‍উম্মুক্ত ভুলতা ফ্লাইওভার

রূপগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): রূপগঞ্জে ভুলতা ফ্লাইওভার ও বীরপ্রতীক গাজী সেতু পরিদর্শন করেছেন, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক। শুক্রবার (৭ জুন) বিকেলে তিনি এ ফ্লাইওভার ও সেতু পরিদর্শন করেন।

উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা ভুলতা ফ্লাইওভারের ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অংশ ও বীরপ্রতীক গাজী সেতু তিনি পায়ে হেঁটে পরিদর্শন করেন পাট মন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীর।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ভুলতা ফ্লাইওভার এবং বীরপ্রতীক প্রতীক গাজী সেতু হচ্ছে উন্নয়নের মাইল ফলক। আগামী এক মাসের মধ্যে যে কোন দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভুলতা ফ্লাইওভারের ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অংশ আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করবেন।

তিনি জানান, তবে পবিত্র ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে ঘরমুখো মানুষ যাতে যানজটমুক্ত পরিবেশে যেতে পারে সে জন্য জনগণের স্বার্থে ফ্লাইওভারের ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অংশ যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়।

মন্ত্রী বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও এশিয়ান হাইওয়ে সড়কের সংযোগস্থল ভুলতা অত্যন্ত ব্যস্ততম একটি এলাকা। এ এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় যানবাহনগুলোকে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হতো। এ ফ্লাইওভারটি খুলে দেয়ায় এখন যানবাহন গুলোকে কোন যানজটে পড়তে হয় না। ঈদে ঘরমুখো মানুষ অত্যন্ত নির্বিঘ্নে যানজটমুক্ত পরিবেশে যাতায়াত করতে পারছে।

তিনি উল্লেখ করেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে। সে লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে বেশ কিছু মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন। এসব মেগা প্রকল্পের মধ্যে ভুলতা ফ্লাইওভার ও বীরপ্রতীক গাজী সেতুও উেল্লেখযোগ্য।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী মহিলালীগের সভাপতি ও তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী, ভুলতা ফ্লাইওভার প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক রিয়াজ আহমেদ জাবের, ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভুঁইয়া, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছাত্তার চৌধুরী, উপজেলা মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক শিলা রানী পাল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল আলম সিকদার প্রমুখ।