বাউন্ডারি আটকালেন বটে, চার আটকাতে পারলেন না’

ক্রীড়া ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ): ইনিংসের নবম ওভারের ঘটনা। সাকিব আল হাসান ছিলেন বোলিংয়ে। তার ওভারের দ্বিতীয় ডেলিভারিটি ডিপ মিডউইকেটে ঠেলে দেন বেয়ারস্টো। ডিপ স্কয়ার লেগ থেকে ফিল্ডার দৌড়ে আসতে আসতে চারবার জায়গা বদল করেন জেসন রয় আর জনি বেয়ারস্টো। বাংলাদেশি ফিল্ডার যদিও বাউন্ডারি আটকে দিয়েছিলেন, কিন্তু চার আটকে রাখতে পারেননি।

বল চলে যাচ্ছে সীমানার দিকে, সীমানা দড়ি পার হয়ে গেল, চার রান। কমেন্ট্রিতে এমন কথা তো হরহামেশাই শোনা যায়। কিন্তু বল চলে যাচ্ছে সীমানার দিকে, সীমানা পার হলো না, তবু চার। কিভাবে সম্ভব?

হ্যাঁ, বল সীমানা পার না হলেও চার হয়। যদিও এমনটা সচরাচর দেখা যায় না। দৌড়ে কোনো ব্যাটসম্যানকে সর্বোচ্চ তিন রান নিতে দেখা যায়। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে ইংলিশ ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো দৌড়েই নিলেন চার রান। এতে বুঝা যায় আজকে টাইগারদের দুর্বল ফিল্ডিং এর চিত্র।

কার্ডিফে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেছে ইংল্যান্ড। শুরুতে একটু দেখেশুনে খেললেও এখন বাংলাদেশি বোলারদের উপর চড়াও হয়েছেন ইংলিশ দুই ওপেনার।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ২০ ওভার শেষে ইংলিশদের সংগ্রহ ১ উইকেটে উইকেটে ১৩০ রান। রয় ৭৫ রানে ক্রিজে রয়েছেন সংগে যোগ দিয়ে জো রুট করেছেন ১ । এর আগে বেয়াস্টোকে অনেক কষ্টে বিদায় করেছেন অধিনায়ক মাশরাফি। তবে যাওয়ার আগে দ্রুত ৫১ রান নিয়ে গেছেন।