এমপির কাছে সাংবাদিকের প্রশ্নঃ ওরে ধরে না কেন?

সিদ্ধিরগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ):  নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, এবার নারায়ণগঞ্জটাকে শান্তি দিতে চাই। মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি এগুলো মুক্ত করতে চাই। আমি রাজনীতিবিদ। আমি কাজ করতে গেলে ভুল হবে। সাংবাদিক কাজ করতে গেলে ভুল হবে। প্রশাসন কাজ করতে গেলে ভুল হবে। আজ আমাকে কিছু সাংবাদিক ফোন করে বলেছে, পুলিশ দুই একটা চাঁদাবাজ ধরতেছে। আমি বললাম ধরতেছে এটা ভালো কাজ। চাঁদাবাজি করলে ধরবেই তাকে।

এক সাংবাদিক আমাকে প্রশ্ন করলো, ফতুল্লায়তো প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি হচ্ছে। বস্তা ভর্তি টাকা নেয়া হয়। ওরে ধরে না কেন? আমি বললাম ওই সাংবাদিককে, একদিনে তুমি সব আশা কর কেন? পুলিশ তো ফেরেশতা না যে একদিনই সব কাজ করে ফেলবে? আস্তে আস্তে করবে। এ কাজ তো পুলিশের একার না। এ কাজ তো সবার।

বুধবার (২৯ মে) সন্ধ্যায় সিদ্ধিরগঞ্জের চৌধুরীবাড়ি এলাকায় থানা আওয়ামী লীগের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংসদ বলেন, নারায়ণগঞ্জে পুলিশ নিয়ে অনেক কথা উঠেছে। আমি একটা কথা বলতে চাই, শতভাগ ভালো কাজ কেউ করতে পারবে না। এক মাত্র আল্লাহর রসুল ছাড়া। পুলিশ কাজ করতে গেলেও ভুল হবে। কিন্তু আমি আজকে দেখলাম রাস্তা দিয়ে ঘুইরা ঘুইরা দেখলাম, পুলিশ ভালো কিছু কাজ করতেছে। সড়কে শৃঙ্খলাভাবে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ করছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএ রশীদ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, প্রচার সম্পাদক তাজিম বাবু, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের আহ্বায়ক ও নাসিক প্যানেল মেয়র-২ মতিউর রহমান মতি, নাসিক ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা আরিফুল হক হাসান প্রমুখ।