বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করতে চেয়েছিলেন-নাহিদা বারিক

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্ক: বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করতে চেয়েছিলেন মন্তব্য করে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিক বলেছেন, তিনি যখন যাত্রা শুরু করেছিলেন ঠিক ঐ সময়ে আমাদের দেশে পরিকল্পিত ভাবে তাকে হত্যা করা হয়। তাই সঠিক ইতিহাস জানলে বঙ্গবন্ধুর কথা জানতে পারবে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুরে সদর উপজেলার সভা কক্ষে সদর উপজেলা প্রশাসন ও জেলা সরকারী গণগ্রন্থগারে আয়োজনে অনলাইনে গণগ্রন্থগার সমূহের ব্যবস্থাপনা ও উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় উপজেলা পর্যায়ে বই-পাঠ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন,দেশকে জানতে হলে ইতিহাস জানতে হবে। ইতিহাস জানতে হলে বই পড়তে হবে যেই বই পড়ে ইতিহাস জানা যাবে।  তাই বেশি করে বই পড়তে হবে এবং ইতিহাস জানতে হবে। বঙ্গবন্ধু আমাদের সবার কারো একার নয়। আমরা যেই দল করি না কেন বঙ্গবন্ধুর ক্ষেত্রে কোন দল নাই। আমাদের এই বঙ্গবন্ধু না থাকলে আমরা একটি স্বাধীন মানচিত্র পেতাম না।

নাহিদা বারিক আরও বলেন, সমাজের সোনামনিরা মাদকের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। তাদেরকে মাদকের কাছ দুরে রাখতে হবে। নিজের জীবন সুন্দর করতে হলে মাদকের কাছ থেকে দুরে থাকতে হবে। তাই কোন সন্তান যেন মাদকের সাথে জড়িয়ে না পড়ে সেজন্য প্রতিটি মাকে সচেতন হতে হবে। আর বর্তমান সমাজে নারীরা অবক্ষয়ের মধ্যে রয়েছে। নারীদের সচেতন থাকতে হবে যাতে কেউ কোন ভাবে শরীরে স্পর্শ করতে না পারে। কেউ যদি দুষ্টমানী করেও নারীদের শ্লীলতাহানীর মত কোন কাজ করার চেষ্টা করে তাহলে তাহলে প্রতিবাদ করতে হবে। এমন ঘটনা যদি কোন সন্তান তার মাকে অবগত করে তাহলে অবহেলা না করে গুরুত্ব দিয়ে তার প্রতিবাদ করতে হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে নাহিদা বারিক বলেন, ভাল ভাবে লেখাপড়া করে বাবা মায়ের সম্মান বাড়াতে হবে। আজকে বই পড়া প্রতিযোগিতা যারা অংশ গ্রহন করেছে এদের মধ্যে সবাই তো আর পুরস্কার পাবে না। যারা পুরস্কৃত হয়েছে এবং যারা পুরস্কৃত হয়নি তারা সমান। তার কারন সবাই প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করেছেন। এদের মধ্যে যারা পুরস্কৃত হয়নি তাদের মন খারাপ হওয়ার কিছু নেই। তারা ভবিষ্যতে অবশ্যই বড় কিছু করতে পারবে।

অনুষ্ঠানে জেলার সরকারী গণগ্রন্থাগার ও লাইব্রেরিয়ান এমএম মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সদর উপজেলার ৫ টি স্কুল হতে ৪৬জন প্রতিযোগি অংশগ্রহন করেন। এদের মধ্যে ৬জন ১ম,২য় ও ৩য় স্থান হয়ে পুরস্কার পান। তাদেরকে সনদ ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।