না‘গঞ্জ জেলা ছাত্রদলের ইফতার পার্টিতে হট্টগোল : সম্পাদকের বর্জন

রাজনৈতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের আয়োজনে ইফতার মাহফিলে উপস্থিত বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সামনেই তৃণমূল নেতাকর্মীদের তোপের মুখে পড়েন জেলা ছাত্রদল সভাপতি মশিউর রহমান রনি।

সোমবার (২৭ মে) বিকেলে নগরীর ইসদাইরে অবস্থিত বাংলা ভবন কমিউনিটি সেন্টারে ছাত্রদলের ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।  পরে সিনিয়র নেতৃবৃন্দ তাদের নিভৃত করেন।

ইফতার মাহফিলের আয়োজনের পর থেকেই এ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। কমিটির অধিকাংশ নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা না করে এ আয়োজন করার অভিযোগে দলের সিনিয়র সহ সভাপতি, যুগ্ম সম্পাদকসহ একাংশ নেতাকর্মী এ ইফতার বর্জনের সিদ্ধান্ত নেন। যদিও পরে বর্জনকারীদের মধ্যে কয়েকজন ইফতারে অংশ নেন। তবে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম সজীব অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে সোনারগাঁ থানা কমিটি গঠন নিয়ে তুমুল হট্টগোল শুরু হয়। সোনারগাঁ থানা ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের তোপের মুখে পড়েন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি। জেলা বিএনপির শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতেই এ ঘটনা ঘটে। পরে উত্তেজিত সোনারগাঁ ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের শান্ত করতে এগিয়ে আসেন সাবেক ছাত্রদল নেতা ও বর্তমান জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুকুল ইসলাম রাজীব। জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একসাথে বসে আলোচনা করে প্রতিটি থানা কমিটি গঠন করার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় রাজীব বলেন, ‘ছাত্রদল হচ্ছে বিএনপির ভ্যানগার্ড। তাদের এই অবস্থা হলে বিএনপির ভবিষ্যত রাজনীতি অন্ধকার। এটা তাদের দোষ না তারা যা শিখছে তাই করছে। এই অসুস্থ রাজনীতি থেকে আমাদের ফিরে আসতে হবে।

মশিউর রহমান রনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ।

আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি এড. আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, মহানগর যুবদলের সভাপতি মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান রোজেল, মাসুকুল ইসলাম রাজীব, জেলা মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক এড. আনোয়ার প্রধান, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি শাহেদ আহম্মেদ প্রমুখ।