মতলব উত্তরে সাথী আক্তারের হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

মো. দ্বীন ইসলাম, মতলব উত্তর (চাঁদপুর) :  মতলব উত্তর উপজেলার সাদুল্লাপুর গ্রামের গৃহবধূ সাথী আক্তারের হত্যাকারীদের বিচার দাবি করে সংবাদ সম্মেলন করেছে নিহতের স্বামী আবদুল কাইয়ুম প্রধান।

রোববার(২৬মে) দুপুরে নিজ বাড়িতে স্বামী আবদুল কাইয়ুম প্রধান সংবাদ সম্মেলনে সাথী আক্তারকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে দাবী করে হত্যার সাথে জড়িত রাসেল, জোহরা, মাইন উদ্দিন, খাদিজা ও সাগরের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করেন।

তিনি আরো বলেন, এ মামলার ৫ আসামীর মধ্যে ৩জন উচ্চ আদালত থেকে জামিনে এসে লোক মারফত মামলা প্রত্যাহার করার হুমকি দেয়। নতুবা আমাকে ও আমার পরিবারের লোকজনকে হত্যা করবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে।

সংবাদ সম্মেলনে নিহতের পিতা মিজান সরকার, মা বুলবুলি বেগম, বোন রাবেয়া আক্তার, চাচা ইসমাঈল সরকার’সহ গ্রামের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

৭ মে সাদুল্লাপুর গ্রামের মালয়শিয়া প্রবাসী কাইয়ুম প্রধানের স্ত্রীকে পরিকল্পিত বৈদ্যুৎপৃষ্টে হত্যা করে প্রতিবেশী জোহরা বেগমরা। তাদের সাথে পূর্ব শত্রুতা ছিল বলে দাবী করে নিহতের পরিবার। এ নিয়ে ১২ মে মতলব উত্তর থানায় ৫জনকে আসামী করে নিহতের পিতা মিজান সনকার বাদি হয়ে মামলা করে। ওই মামলায় ৩ আসামী উচ্চ আদালত থেকে জামিনে রয়েছে। অন্য ২ আসামী এখনো পলাতক রয়েছে।

নিহতের পিতা মিজান সরকার বলেন, আসামীরা আমার মেয়েকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে। আমার মেয়ের স্বামী মো. কাইয়ুম ওই সময় মালয়শিয়া ছিল। আড়াই বছরের সোহান নামে আমার এক নাতিও ওই সময় আহত হয়।
আসামীরা আমার মেয়েকে হত্যা করে স্টোক করেছে বলে লোকজনদের জানান। হত্যাকে গোপন করার করার চেষ্টা করে। আমি এ হত্যা কান্ডের সুষ্ঠু বিচার চাই।