নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় খলিল মেম্বারের স্ত্রী ও মেয়ে কারাগারে

আইন-আদালত(আজকের নারায়নগঞ্জ): নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ার সালাউদ্দিনের স্ত্রী মনি বেগম ও তার ৩ শিশুকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের অভিযোগ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গত বছরের ১৫ অক্টোবরে মনি বেগম বাদী হয়ে কুখ্যাত খলিল মেম্বার ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

উক্ত মামলায় গত মঙ্গলবার(২১মে) নারায়ণগঞ্জ আদালতে খলিলের স্ত্রী রোকেয়া বেগম ও তার মেয়ে’র জামিন চাইলে আদালত তা নামঞ্জুর করে। পরবর্তীতে উভয়কে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়।

বন্দরের উত্তরাঞ্চল খ্যাত মদনপুর ইউনিয়ন এর ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বর খলিলুর রহমান যাকে সকলে ৭ মার্ডারের আসামী নূর হোসেনের সহকারী, ইয়াবার ডিলার ও সমগ্র মদনপুরে চাঁদাবাজীর গডফাদার হিসেবে চিনে থাকে। ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন, পরিবহনে চাঁদাবাজী, সমগ্র এলাকায় মাদকের ব্যবসা, পুলিশের গাড়ীতে হামলা ও অগ্নিসংযোগ সহ নানাবিধ অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ে। খলিল বাহিনীর অত্যাচারের হাত থেকে রক্ষা পেতে সাধারণ জনগণ আইন অনুযায়ী তাদের কঠোর শাস্তির দাবী নিয়মিত জানিয়ে আসছে।