‘তুমি তো প্রতিজ্ঞা করেছিলে, কখনো ছেড়ে যাবে না।

বিনোদন ডেস্কঃ ভাঙনের মুখে এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইপসিতা শবনম শ্রাবন্তীর সংসার। স্বামীর সঙ্গে দীর্ঘ দিন থেকে তার সম্পর্ক খারাপ যাচ্ছে। শ্রাবন্তী যুক্তরাষ্ট্র থাকেন। তার স্বামী মোহাম্মদ খোরশেদ আলম জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকও। গত ৭ মে শ্রাবন্তীকে তালাকের নোটিশ পাঠান খোরশেদ আলম। নোটিশ পেয়ে দ্রুত যুক্তরাষ্ট্র থেকে দুই মেয়ে রাবিয়াহ ও আরিশাকে নিয়ে দেশে ফিরে আসেন শ্রাবন্তী।

দেশে ফেরার পর স্বামী খোরশেদ আলমের সঙ্গে নানাভাবে যোগাযোগের চেষ্টা করেন শ্রাবন্তী। কিন্তু বারবারই ব্যর্থ হন। গতকাল শনিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তিনি এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে শ্রাবন্তী লিখেন, ‘কেন এমন করছ? দাও না আমাদের মাফ করে। এক ঘর দরকার নাই, কিন্তু এক ছাদের নিচে থাকি আমরা। বাচ্চাদের প্রতি একটু দয়া করো।’

শ্রাবন্তী আরও লিখেছেন, ‘তুমি তো প্রতিজ্ঞা করেছিলে, কখনো ছেড়ে যাবে না। এখন কেন ছেড়ে গেছ? আমাদের বাচ্চাদের ভাঙা পরিবারে বড় হতে দিয়ো না। আমি তোমার কাছে হাত জোড় করে বলছি, আমাদের বাচ্চাদের মানসিকভাবে ভেঙে দিয়ো না।’

শ্রাবন্তী বর্তমানে বগুড়া রয়েছেন। গত ২৬ জুন রাজধানীর খিলগাঁও থানায় তিনি স্বামীর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন আর যৌতুকের একটি মামলা করেছেন। তবে তিনি আশা করছেন, তার সংসার যেন না ভাঙে। সকল ভুলবোঝাবুঝির অবসান হবে।