আল্লাহর ঘরে দাড়িয়ে অভিনয় করতে চাই না- শামীম ওসমান

সিদ্ধিরগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের জাতীয় সাংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, কয়দিন রাজনীতি করবো সেটা বড় কথা নয় একটা হিসাব হলো সত্যি কথা ঈমানের সাথে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করতে চাই। আল্লাহর ঘরে দাড়িয়ে অভিনয় করতে চাই না, কে আওয়ামীলীগ কে বিএনপি আর কে জাতীয় পার্টি তা দেখতে চাই না, কে ভালো মানুষ কে খারপ মানুষ সেটা দেখতে চাই। ভালো মানুষদেরকে নিয়ে ভালো কাজটা করতে চাই। সেজন্য আপনাদের কাছে দোয়া চাই যেন মানুষের জন্য ও আল্লাহর জন্য কাজ করতে পারি। আল্লাহ যেন নেককার বান্দাদের সাথেই আমার মৃত্যু দেন।

শুক্রবার (১০ মে) বাদ আছর নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) ১০নং ওয়ার্ডের গোদনাইল আরামবাগ এলাকাস্থ আরামবাগ জামে মসজিদে দারুল উলুম আরামবাগ কওমিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার সিনিয়র সহসভাপতি ও নাসিক ১০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী ইফতেখার আলম খোকনের বাবা মরহুম হাজী মো.ডা. রফিকুল ইসলামের কুলখানী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান আরো বলেন, গতবার বড় করে ঈদের জামাত করেছিলাম এবারও আপনাদের সহযোগিতায় আরো সুন্দর করে করার চেষ্টা করবো। নারায়ণগঞ্জের যে পজিশন আজকাল দেখা যাচ্ছে কেউ কেউ অনেক সম্মানী লোককেই অসম্মান শুরু করেছে, ভাল লোককে খারাপ বানানো শুরু হয়েছে আর খারাপ লোকরা ভাল সাজা শুরু করেছে।

এসময় সাংসদ শামীম ওসমান তাঁর পরিবারের প্রয়াত সদস্য এবং কাউন্সিলর খোকনের বাবার রুহের মাগফেরাত কামনা করে নিজের জন্যও সকলের কাছে দোয়া প্রার্থণা করেছেন।

নাসিক ১০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী ইফতেখার আলম খোকনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে উক্ত কুলখানী অনুষ্ঠানে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. ইয়াছিন মিয়া, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর শাহীন শাহ পারভেজ, নাসিক ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-২ মতিউর রহমান মতি, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান, ১০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক নূর আলী, ফতুল্লা থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা মহসিন ভুঁইয়া, কাজী আমির, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন মেহেদী, শ্রমিক নেতা আশরাফ উদ্দিন, যুবলীগ নেতা মানিক মাষ্টারসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং মরহুমের পরিবারের সদস্যসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমূখ।