হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি আজ

আজকের নারায়নগঞ্জঃ রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি আজ ১ জুলাই (রোববার)। হলি আর্টিজানের এ হামলা ছিল দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ ও নৃশংস জঙ্গি হামলা।

রোববার সকাল ৯টা থেকে নিহতদের স্বজনরা শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন এবং তাদের স্মরণ করছেন। এ ছাড়া জাপানের রাষ্ট্রদূতসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরাও শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

বাড়ির মালিকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, হলি আর্টিজানে হামলার দুই বছরে আজ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চার ঘণ্টা জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

হলি আর্টিজান হামলার পর নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হয়েছে। যেসব এলাকায় এমন জঙ্গি হামলা হয়, সেই জায়গাগুলোতে হামলার বর্ষপূর্তিতে আবারও হামলা হওয়ার নজির শঙ্কা থাকে। তাই হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হয়েছে। তবে পুলিশ বলছে, জঙ্গি হামলার কোনো সম্ভাবনা নেই।

এদিকে ওই হামলায় নিহত দুই পুলিশ কর্মকর্তা বনানী থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আহমেদ এবং ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার রবিউল ইসলাম স্মরণে গুলশানের ১১৫ নম্বর সড়কে নির্মিত ‘দৃপ্ত শপথ’ নামে ভাস্কর্যের উদ্বোধন করবেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাত পৌনে ৯টার দিকে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালায় বন্দুকধারী জঙ্গিরা। ওই দিন রাতেই তারা দেশি-বিদেশি মোট ২০ জনকে হত্যা করে। বিদেশি যারা নিহত হয়েছিলেন, তাদের মধ্যে ছিলেন জাপানের নাগরিক, আর্জেন্টিনার নাগরিক, ইতালির নাগরিক ও ভারতের নাগরিক। সেদিনই উদ্ধার অভিযানের সময় বন্দুকধারীদের বোমার আঘাতে নিহত হন পুলিশের দুই কর্মকর্তা। পরের দিন সকালে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত হয় পাঁচ হামলাকারী। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরেকজনের মৃত্যু হয়। জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করে।