এক মাসের মধ্যে বন্দরে পানি সমস্যার সমাধান করব- সেলিম ওসমান

  সংবাদদাতা,বন্দরঃ  নারায়ণগঞ্জ -৫ আসনের সংসদ সদস্য  একেএম সেলিম ওসমান বলেছেন, আমি আপনাদের গোলাম, যতক্ষণ পর্যন্ত পানি সমস্যা ততদিন পর্যন্ত আমি আপনাদের গোলামীর জন্য প্রস্তুত। একজন গোলাম হিসাবে বলছি, আগামী এক মাসের মধ্যে বন্দরে পানি সমস্যার সমাধান করব। আপনারা আমাকে যেন গালি দিতে না পারেন। এ পানি সমস্যা সমাধানের সাথে নির্বাচনের কোন সর্ম্পক নাই। ভোটের কোন সর্ম্পক নাই। রাজনীতির কোন সর্ম্পক নাই।

তিনি বলেন,পানি যদি নাই পাই ভোট দিয়ে লাভ কি? গ্যাস যদি না পাই ভোট দিয়ে লাভ কি? আপনাদের সমস্যার সমাধান না করে ভোট চাওয়ার ক্ষমতা আমার হয়নি। আসুন আল্লাহর কাছে দোয়া করি জুলাই মাসের মধ্যে যেন আমাদের কোন পানি সমস্যা না থাকে। সে জন্য সিটি করপোরেশনের প্রতি ওয়ার্ডে ১০ টি করে টিউবঅয়েল বসানো হবে। এই পানি সমস্যা সমাধানের সাথে রাজনৈতিক কোন সর্ম্পক নাই।

সেলিম ওসমান আরো বলেন,   আমার কাছে কোন দল নাই। যে কোন সমস্যা আমরা এক সাথে বসে সমাধান করব। নির্বাচন করব কি করবনা। এ সিন্ধান্ত অনেক উপরে থেকে আসে। এমপি দাবি করব আর উন্নয়নে কাজ করবনা এটা কোন কথা নয়। বন্দরে কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি রয়েছেন। আপনারা তাকে সহযোগিতা করতে অনুরোধ করবেন। তিনি সহযোগিতা করলে নবীগঞ্জ ঘাটে স্বাচ্ছন্দে ২৪ ঘন্টা ফেরি চলাচল করবে। আমি পিঠ পেতে রেখেছি আপনাদের কিল হজম করার জন্য। আমি কান পেতে রেখেছি আপনাদের গালি শোনার জন্য।

তিনি শনিবার বন্দরের চৌরাপাড়া সোমবারিয়া বাজারে পানি সংকট নিরসনে করণীয় শীর্ষক এলাকাবাসীর সঙ্গে এক মত বিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আতাউর রহমান মুকুল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের ,বন্দর থানার ওসি শাহীন মন্ডল, ওসি(তদন্ত) হারুনুর রশিদ।

মুক্তিযোদ্ধা সফিউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন,শহীদুল্লাহ মাস্টার, কাউন্সিলর সুলতান আহমেদ, মতবিনিময় সভায় এলাকার সমস্যা তুলে ধরেন, মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, সাংবাদিক আবদুল লতিফ রানা, শাহজালাল সাহা,আর্শাদ মিয়া, নূর হোসেন, আবুল হাশেম, আলআমিন ও স্থানীয় কাউন্সিলররা ।

মত বিনিময় সভা শেষে সেলিম ওসমান এমপি উত্তর লক্ষণখোলায় একটি ডিপ টিউবওয়েল স্থাপনের কাজ উদ্বোধন করেন।