বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে কে কার মুখোমুখি

ক্রীড়া ডেস্ক : ৩২ দলের টুর্নামেন্ট নেমে এসেছে ১৬ দলে। প্রি-কোয়ার্টার রাউন্ড নিশ্চিত হয়েছে ১৬ দলের। অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে দলগুলো জায়গা করে নিয়েছে নক আউট পর্বে। কেউবা নিশ্চিত করেছে সহজেই।

বিশ্বমঞ্চে এখন পর্যন্ত বড় কোনো অঘটন ঘটেনি তাও নয়। হৃদয় ভেঙেছে অনেকবার। বিশেষ করে জার্মান ভক্তদের। কারণ দ্বিতীয় রাউন্ড পেরুতে পারেনি ২০১৪ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা। জার্মানরা না থাকায় রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে যে একটা ধ্রুবতারা খসে পড়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

পাশাপাশি এবার নেই আফ্রিকার কোনো দেশও। এ অঞ্চল থেকে পাঁচটি দল বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব পেরিয়েছিল। নাইজেরিয়া, মিসর, সেনেগাল, মরক্কো এবং তিউনিসিয়া উড়ে এসেছিল রাশিয়ায়। কিন্তু খালি হাতেই বিদায় নিয়েছে দলগুলো। এদের মধ্যে সবথেকে বেশি আশা ছিল মিসর এবং সেনেগালকে নিয়ে। মোহাম্মদ সালাহ থাকায় মিসরকে নিয়ে আশায় বুক বেঁধেছিল ফুটবলপ্রেমিরা। কিন্তু প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ দলটি। কপাল পোড়া সেনেগালের! সবকিছু্ই ঠিকঠাকই ছিল তাঁদের। কিন্তু তাদের হৃদয় ভাঙে ফেয়ার প্লে’র কারণে। বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে বেশি হলুদ কার্ড দেখায় বাদ পড়ে সেনেগাল। তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল জাপান। দুই দলের হলুদ কার্ডের ব্যবধান ছিল ৬-৪। তাতেই এশিয়ার একমাত্র দল হিসেবে বিশ্বকাপে টিকে যায় জাপান।

এছাড়া এশিয়া থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিল দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া, ইরান ও সৌদি আরব। কিন্তু গ্রুপ পর্বেই শেষ তাদের বিশ্বকাপ।

বরাবরের মতো দাপট ধরে রেখেছে ইউরোপ। দশটি দেশ দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছে- ফ্রান্স, স্পেন, ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, পর্তুগাল, ডেনমার্ক, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও স্বাগতিক রাশিয়া। তবে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের ছাপিয়ে এ অঞ্চলের দলগুলোর মধ্যে ভালো পারফরম্যান্স ক্রোয়েশিয়া ও বেলজিয়ামের। তিন ম্যাচের তিনটিতেই জিতে শেষ ষোলোর টিকিট কেটেছে তারা। বলার অপেক্ষা রাখে না দুই দলই রয়েছে দুর্দান্ত ফর্মে। নজরকাড়া পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছে ফ্রান্স, ইংল্যান্ড, সুইডেনও। প্রথম রাউন্ডে পর্তুগাল ও স্পেন নিজেদের মান বাঁচিয়েছে।

এদিকে ল্যাতিন আমেরিকার চার টপ ফেভারিট কলম্বিয়া, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়েও আছে শেষ ষোলোর লড়াইয়ে। তিন প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়নের সঙ্গে কলম্বিয়া দারুণ ফুটবল খেলেছে। তবে মাঠের পারফরম্যান্সে এই অঞ্চলের সেরা দল এখন পর্যন্ত উরুগুয়ে। তিন ম্যাচের তিনটিতেই জয়ের মুখ দেখেছে তারা। ব্রাজিল গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে গেলেও আর্জেন্টিনা তাদের নাম অনুযায়ী খেলতে পারেনি! দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট পেলেও ১৬ দলের মধ্যে তাদের পারফরম্যান্স এবং পয়েন্ট তলানিতে! অবশ্য এশিয়ার দল জাপানেরও রয়েছে ৪ পয়েন্ট।

শেষ ষোলোর আরেক দল উত্তর আমেরিকার মেক্সিকো। গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে টিকে গেছে ২০২৬ বিশ্বকাপের সহ আয়োজক দেশটি। সেরা আটের লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ ব্রাজিল।

শেষ ষোলতে যারাঃ

ফ্রান্স, স্পেন, ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, পর্তুগাল, রাশিয়া, ডেনমার্ক, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া, কলম্বিয়া, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে, মেক্সিকো ও জাপান

বিদায় নিল যারাঃ
সৌদি আরব, মিসর, ইরান, মরক্কো, পেরু, অস্ট্রেলিয়া, নাইজেরিয়া, আইসল্যান্ড, সার্বিয়া, কোস্টারিকা, দক্ষিণ কোরিয়া, জার্মানি, তিউনিসিয়া, পানামা, সেনেগাল, পোল্যান্ড

এবার এক নজরে দেখে নেয়া যাক দ্বিতীয় রাউন্ডে কে কার মুখোমুখি

তারিখ           সময়              প্রতিদ্বন্ধি দল              ম্যাচ ভেন্যু

৩০ জুন       রাত ৮টা   ফ্রান্স-আর্জেন্টিনা            কাজান এরেনা
৩০ জন       রাত ১২টা  উরুগুয়ে-পর্তুগাল            ফিশ্ট স্টেডিয়াম
১ ‍জুলাই      রাত ৮টা   স্পেন-রাশিয়া                  লুঝনিকি স্টেডিয়াম
১ জুলাই      রাত ১২টা  ক্রোয়েশিয়া-ডেনমার্ক       নিঝনি নভগোরদ
২ জুলাই     রাত ৮টা    ব্রাজিল-মেক্সিকো            সামারা এরেনা
২ জুলাই     রাত ১২টা   বেলজিয়াম-জাপান         রোস্তভ এরেনা
৩ জুলাই     রাত ৮টা   সুইডেন-সুইজারল্যান্ড      সেন্ট পিটার্সবার্গ
৩ জুলাই     রাত ১২টা   ইংল্যান্ড-কলম্বিয়া         স্পার্টাক স্টেডিয়াম