‘বঙ্গবন্ধু ‘ ছবির পরিচালক শ্যাম বেনেগাল কথা বললেন শামীম ওসমানের সাথে

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নিয়ে সিনেমা তৈরি করতে ঢাকায় এসেছেন ভারতের বরেণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। এ নিয়ে বিভিন্ন ব্যাক্তিত্বের  সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি ও আওয়ামী লীগ নেতা শামীম ওসমানের সাথেও কথা বলেছেন তিনি। এ সময়ে দুইজনের মধ্যে পারস্পরিক আলোচনায় নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের জন্মজেলা ও স্বাধীকার আন্দোলনে রাজধানী লগোয়া এ জেলার বিভিন্ন পটভূমির বিষয়গুলোও উঠে আসে।
গত সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে শ্যাম বেনেগাল ঢাকায় পৌঁছান। চলচ্চিত্রটি নিয়ে সার্বিক আলাপ আলোচনা করতেই ঢাকাতে আসেন বলিউডের তুখোড় এই নির্মাতা।
বুধবার(৩ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধুর জীবনী নির্ভর চলচ্চিত্রটির ব্যাপারে আলোচনা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকও করেছেন শ্যাম বেনেগাল।
পরে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমানের সঙ্গেও সৌজান্য সাক্ষাৎ হয়। তখন ভারতের ডেপুটি হাই কমিশনার বিশ্বদ্বীপ দে সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
শামীম ওসমান বলেন,নারায়ণগঞ্জেই মূলত আওয়ামী লীগের জন্ম। ৫২ থেকে শুরু করে ৭১ সহ এর আগে ও পরে প্রত্যেকটি আন্দোলন সংগ্রামে নারায়ণগঞ্জের ভূমিকা ছিল সবচেয়ে বেশী। আমার সঙ্গে আলাপকালে আমি এসব বিষয়গুলো তুলে ধরেছি। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ছিল আত্মার সম্পর্ক। তিনি অনেকবার নারায়ণগঞ্জে এসেছেন। নারায়ণগঞ্জ থেকেও অনেক নেতারা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে দেখা করে আন্দোলনের নির্দেশনা নিয়ে এসেছিলেন। ওই সময়ে নারায়ণগঞ্জের বায়তুল আমান সহ অনেক স্থানে বঙ্গবন্ধু এসে আন্দোলনের রূপরেখা তৈরি করতেন। নারায়ণগঞ্জের নেতাদের তিনি বিশ্বস্ত ও আপন ভাবতেন। সংক্ষিপ্ত আলোচনায় শ্যাম বেনেগালকে অবহিত করা হয়েছে।
এখানে উল্লেখ্য যে, বঙ্গবন্ধুর যে অসমাপ্ত আত্মজীবনী প্রকাশ হয়েছে সেখানে নারায়ণগঞ্জকে কয়েকবার গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। শামীম ওসমানের বাবা স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত একেএম সামসুজ্জোহা ও আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাস্থল বায়তুল আমানের কথাও সেই বইয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়। সে হিসেবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে যে চলচ্চিত্র নির্মাণ হবে সেখানে নারায়ণগঞ্জ থাকতে পারেও ধারণা করা হচ্ছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে ছবিটি বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হবে। ২০২০ সালে শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষের প্রাক্কালে তাঁর জীবন চলচ্চিত্র তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে। পরিচালক হিসেবে বাংলাদেশ সরকার মুম্বাইয়ের শ্যাম বেনেগালকে বেছে নিয়েছেন। বলিউডের ৮৩ বছরের এই প্রবীণ পরিচালক অবশ্য অনেক আগে থেকেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে গবেষণা ও পড়াশোনা করছেন।
এদিকে মঙ্গলবার সকালে এফডিসিতে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে জীবনী নির্ভর চলচ্চিত্র নিয়ে প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে চলচ্চিত্রটির কর্মপরিকল্পনা, চিত্রনাট্যের প্রক্রিয়া, শিল্পী নির্বাচনসহ নানা বিষয়ে আলোচনা করেন নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল। সেখানে জানানো হয়, প্রাথমিক ভাবে বায়োপিকটি ইংরেজি ভাষায় নির্মাণের পরিকল্পনা থাকলেও সর্ব সম্মতিক্রমে ছবিটি বাংলা ভাষায় নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।