মরক্কোর সাথে ড্র করে নকআউটপর্বে স্পেন

ক্রীড়া ডেস্কঃ   মরক্কোর দুর্ভাগ্যই বটে, দারুণ খেলেও প্রথম দুই ম্যাচে হেরেছিল। রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব থেকে আগেই তাদের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। গ্রুপ পর্বের তৃতীয় ম্যাচটিতে সাফল্য পেলেও খুব একটা কাজে আসতো না তাদের, তবে স্পেনের জন্য ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পরের পর্বে খেলতে হলে সাফল্য পাওয়াটা খুবই জরুরি। এমন ম্যাচে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা দুর্বার মরক্কোর সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে।

অবশ্য এ ম্যাচে ড্রয়েও ৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই পরের পর্বে ওঠে স্পেন। ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে তারা এক জয় ও দুই ড্রয়ে এই সংগ্রহ ঝুলিতে পুরেছে। নকআউট পর্বে তারা মুখোমুখি হবে ‘এ’ গ্রুপ রানার্সআপ রাশিয়ার।

কালিনিনগ্রাদে অনুষ্ঠিত ম্যাচে সবাইকে চমকে দিয়ে ম্যাচের ১৪ মিনিটেই এগিয়ে যায় মরক্কো (১-০)। খালিদ বুয়াতাইব মাঝ মাঠ থেকে একটি বল নিয়ে বক্সে ঢুকে চমৎকার শটে গোল করেন। গোলরক্ষকের দু’পায়ের ফাঁক দিয়ে বলটি জালে জড়িয়ে আফ্রিকান দর্শকদের উল্লাসে মাতিয়ে তোলেন তিনি।

ম্যাচের ১৯ মিনিটে খেলার সমতায় ফিরে স্পেন। তরুণ ফরোয়ার্ড ইস্কো দলকে খেলায় ফেরান। মিডফিল্ডার আন্দ্রস ইনিয়েস্তার মাইনাস থেকে চমৎকার শটে গোল করেন এই তরুণ ফরোয়ার্ড (১-১)।

খেলার ২৫ মিনিটে সেই খালিদ বুয়াতাইব ব্যবধান বড়ানোর চমৎকার সুযোগ হাতছাড়া করেন। তাঁর দুর্ভাগ্য বক্সের মধ্যে বল পেয়েও জালে জড়াতে পারেননি।

মরক্কোর দুর্ভাগ্য দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও দারুণ একটি সুযোগ হাতছাড়া করে। বক্সের বাইরে থেকে সোফিয়ান আমরাবতের চমৎকার শট ক্রসবারের লেগে ফিরে আসে, তা না হলে গোল হতেও পারতো।

৬২ মিনিটে স্পেনও একটি গোল পেতে পারতো। কর্নার থেকে পাওয়া বলে জেরার্ড পিকের চমৎকার হেড ক্রসবার ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।

কিন্তু ম্যাচের ৮১ মিনিটে স্পেনকে হতাশায় ডোবান মরক্কোর ডিফেন্ডার বাদও বেনউন, কর্নার থেকে চমৎকার হেডে গোল করে উল্লাসে মাতিয়ে তোলেন দলকে (২-১)।

তবে ম্যাচের একেবারেই শেষ মুহূর্তে ইনজুরি সময়ে গোল করে দলের হার এড়ান স্পেন ফরোয়ার্ড ইগো আসপাস। ২-২ গোলে ড্র করে তাই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় তারা।