ভুল করো না

– হাসান রেজা সায়ীদ

ক্ষণিকের জন্যে নিঃশ্বাস বন্ধ করে
বুঝে নিলে তুমি বেঁচে আছো।
আজকাল বড় ভয়, মৃত্যু যখনখুশী
হানা দেয় ফ্ল্যাটবাড়িতে, সড়কে ও বহুতল
ভবনের রৌদ্রস্নাত ট্যারেসে –
একটি শালিকের মতো অসীম মমতা নিয়ে
অধীর অপেক্ষায় অভিবাদন জানাবে বলে।

যেতে পারো তুমি, যেতে পারে
স্নিগ্ধ তরুণী, নওল কিশোর, সদ্যোজাত
শিশুর মাতা, মাঝবয়সী ঘরফেরার পথে
খবরের কাগজের অনলস কর্মী।
আমাদের খবর নিয়ে হেডলাইন বানাবে
বলে ছুটে চলা তার মোটরবাইকে লাঙ্গল
চালাতে পারে বেরহম ঘাতক ট্রাক।

ছুটে আসা চিকিৎসক, তোমাকে বাঁচাবার
ব্রত নিয়ে যার শপথ নেয়া হয়েছিলো,
হঠাৎ হৃৎকমলের পাপড়ি খসে যেতে পারে
তার নিতান্তই হেলায়। তোমার হয়ে
লড়বে বলে কানুনের সৈনিক নিজেই
হতে পারে অন্ধকানুনের কাননে বন্দী।

যখন তখন যা খুশী ঘটে যেতে পারে
জীবনের রূঢ় উপত্যকায়, দুয়েকটা স্বপ্নের
তরুলতা নিয়ে বাগানে সাজিয়ে রেখো তাই
প্রিয়দর্শী চামেলির ঝাড়। ওখানে তোমার
হৃদয়ের সুবাস ছড়িয়ে দেবে বৃক্ষেরা।

ভুল করোনা, যখন খুশী এসে যেতে
পারে অনাহুত ডাক। তাই ভালোবেসে
মানুষেরে কবিতার নীল লেফাফায় লিখে
যেতে পারো – এপিটাফ।