স্মৃতির আঙিনায় একদিন

– মহুয়া বাবর

জীবনের ক্ষয়ে যাওয়া দিনগুলো
সময়ের নিয়মে কখন যে হয়ে যায় স্মৃতি
পায়ে পায়ে শেষ হয় পথের গতি
স্নেহ ভালবাসাও নিঃস্ব হতে হতে শুকনো পাতার মতো ঝরে হয় মাটি
তারপর মাটির পর মাটি ততদিনে শেওলারাও জমে ওঠে ভারী

বৃষ্টি ঝড়ে ওলটপালট হয় ধরণী
আবার নতুন ঘাস জন্মায়
বিন্দু বিন্দু শিশির কণা ফুলে ফলে পাখির ডাকে নতুন ভোর হয়
সবকিছু আগের মতো, কোথাও কিছু হয়নি যেনো
অথচ সেই ডাক আর শুনিনি, নিজেও ডেকে সাড়া পাইনি

বহুদিন পর আবার খুঁজি ফিরি
মাটির গন্ধে গাছের সঙ্গে
পুকুরের শেওলা সরিয়ে ছায়া দেখি হারানো দিন কিংবা প্রিয়মুখ
শেওলার জল আর চোখের নোনা জল যেনো এক হয় বুক
পুকুরের অতলে খুঁজি ফেলে যাওয়া কোনো অমূল্য রতন
জানি আজ কোথাও কিছু নেই
তবু যেনো কতো কি খুঁজে পাই
এ কোনো সম্পত্তি নয়
এ যে রক্তের ভালবাসার সম্পদ যা চিরকালের চির অবিস্মরণীয়

শুনশান আঙ্গিনায় তবু ঘুরিফিরি
কবুতর হাঁস মুরগির সাথে আজ ঘরবাড়ি।