সালাহ ফিরলেও ভাগ্য ফিরলো না মিশরের,রাশিয়ার দ্বিতীয় জয়

ক্রীড়া ডেস্ক: মোহাম্মদ সালাহ ফিরলেন। কিন্তু ভাগ্য বদলাল না মিসরের। প্রথম ম্যাচে উরুগুয়ের কাছে ১-০ ব্যবধানে হেরেছিল মিসর। মঙ্গলবার স্বাগতিক রাশিয়া তাদের জালে দিয়েছে ৩ গোল।

প্রথম ম্যাচে গোল না পেলেও মিসর রাশিয়ার বিপক্ষে করেছে একটি গোল। সেটি অবশ্য এসেছে মিসরের ‘রাজপুত্র’ সালাহর পা ছুঁয়েই। ৩-১ ব্যবধানে হারে বিশ্বকাপ প্রায় শেষ মিসরের। আর টানা দ্বিতীয় জয়ে উড়ছে রাশিয়া। শেষ ষোলোয় জায়গা করে নিতে এক পা এগিয়ে গেল তারা। সৌদি আরবের বিপক্ষে উরুগুয়ে প্রত্যাশিত জয় পেলেই রাশিয়া চলে যাবে শেষ ষোলোয়।

দুই দলের লড়াইয়ে প্রথমার্ধে কোনো দলই পায়নি গোলের স্বাদ। দ্বিতীয়ার্ধেই হয়েছে ৪টি গোল।

শুরুতে আত্মুঘাতী গোল। ডি বক্সের ভেতরে গোলোভিনের ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে বল নিজেদের জালে জড়ান আহমেদ ফাতহি। ৫৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন ডেনিস চেরিশভ। সৌদির বিপক্ষে দুই গোল করা চেরিশভ নিজেদের তৃতীয় গোলটি করেন দারুণ দক্ষতায়। মারিও ফের্নানন্দের ক্রস থেকে বল নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে লক্ষভেদ করেন চেরিশভ। তিন মিনিটের ব্যবধানে আবার গোল রাশিয়ার। এবার গোলদাতা জুবা। ইলিয়া কুতেপভের বাড়ানো বলে একজনকে কাটিয়ে শট নেন জুবা। তার নেওয়া শট খুঁজে পায় মিসরের জাল। ১৬ মিনিটের ব্যবধানে ৩ গোল হজম করে ভেঙে পড়ে মিসর। ম্যাচটা হেরে বসে সেখানেই।

সালাহ চেষ্টা করেছিলেন। ডি বক্সের ভেতরে কয়েকটি আক্রমণও করেছিলেন। কিন্তু ফিনিশিংয়ের অভাবে গোল হয়নি। তবে ৭৩ মিনিটে বিশ্বকাপে নিজের খাতা খুলেন সালাহ। ডি বক্সে তাকে ফাউল করায় পেনাল্টি পায় মিসর। চমৎকার শটে গোল করেন লিভারপুল স্টার। ওই গোলে শেষ রক্ষা হয়নি মিসরের।

২৮ বছর পর বিশ্বকাপে ফিরে টানা দ্বিতীয় ম্যাচ হারের তিক্ত স্বাদ পেতে হল তাদেরকে। বিশ্বকাপ প্রায় শেষ মিসরের। উরুগুয়ের বিপক্ষে সৌদি আরব জয় না পেলে দেশে ফিরতে হবে তাদেরকে। কাজটা বেশ কঠিন সৌদি আরবের জন্য। তাহলে কি সালাহর বিশ্বকাপ ৯০ মিনিটেই শেষ!