নওগাঁর মান্দায় গোটগাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শীতকালীন পিঠা মেলা অনুষ্ঠিত

 

মাহবুবুজ্জামান সেতু, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মান্দায় গোটগাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শীতকালীন পিঠা মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রতিবছরের ন্যায় এবারেও গ্রামীণ ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্যই বিদ্যলয়ের প্রধান শিক্ষক শাহজামাল হকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ পিঠা মেলার আয়োজন করা হয়।

প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের নারী শিক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা পালনকারী প্রতিষ্ঠান গোটগাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০১৮ সালে বিজয়ের মাসে আয়োজিত শীতকালীন পিঠা মেলায় শত শত দর্শনার্থীদের ভীড় ছিল লক্ষ্যনীয়।

অত্র বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণীর ২ শত জন ছাত্রীরা ৫ টি দলে বিভক্ত হয়ে এ পিঠা মেলায় অংশ নেয়।

বিদ্যালয় মাঠে শনিবার দিনব্যাপী পিঠা মেলায় গোলাপ, শাপলা, পলাশ, শিউলী এবং শিমুল নামের ছাত্রীদের ৫ টি দলের স্টল ছিল।

স্টলে ছাত্রীরা সম্মিলিতভাবে নিজেদের তৈরি বর্ণ পিঠা, লাভ পিঠা, ঝিলমিল পিঠা, পাকান পিঠা, বেনি পিঠা, মাছ পিঠা, ক্লিপ মিঠা, নৌকা পিঠা, পাতা পিঠা, ফুল পিঠা, কফির দোলনা পিঠা, ভাপা পিঠা, ডিম পিঠা ও জামাই পিঠা সহ বিভিন্ন রকমের পিঠা প্রদর্শন এবং বিক্রয় করেন।

পিঠা মেলায় অংশগ্রহণকারী অত্র বিদ্যালয়ের ছাত্রী মাসুমা আক্তার মিশু, মুন্নি আরা এবং মাসুমা আফসানা মিমি জানায়, প্রতি বছরের ন্যায় প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী পিঠা মেলার আয়োজন করায় আমরা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানাই।

আমরা আশা করি গ্রামীণ ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে আগামীতেও যেন অত্র বিদ্যালয়ে এমন পিঠা মেলার আয়োজন করা হয়।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বেলাল হোসেন জানান, মান্দা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ এটি।

এ বিদ্যালয়ে প্রতিবছরই শীতকালীন পিঠা মেলার আয়োজন করা হয়ে থাকে।

গোটগাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহজামাল হক বলেন, বাঙ্গালিরা দিন দিন গ্রামীণ সংস্কৃতি ভুলে যেতে বসেছে।

সেজন্য গ্রামীণ ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে আমরা অত্র বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রতিবছরের ন্যায় শীতকালীন পিঠা মেলার আয়োজন করে থাকি।

যাতে করে বাঙ্গালিদের মাঝে গ্রামীণ সংস্কৃতি জাগ্রত হয়।

পিঠা মেলায় অংশগ্রহণকারী ৫টি দলে বিভক্ত ছাত্রীদের মধ্যে থেকে সেরাদের সেরা দলকে পুরস্কৃত করা হবে।

পিঠা মেলায় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক ফরিদ উদ্দিন, সহকারী শিক্ষক শাখেরুন খাতুন, আব্দুস সালাম, এশরাফুল ইসলাম, জাকির হোসেন, আমেনা খাতুন, আসমাউল হুসনা, ওবাইদুর রহমান, আতাউর রহমান, লাইব্রেরিয়ান মামুনুর রশিদ, অফিস সহকারী মিজানুর রহমান, অফিস সহায়ক শরিফ উদ্দিন, আয়া আমেনা খাতুন, নৈশ প্রহরী বেলাল হোসেন সহ অত্র বিদ্যালয়ের সকল ছাত্রী ও অবিভাবক এবং কমিটির সদস্যবৃন্দ।