এখন বিচার বিবেচনা সব আপনাদের কাছে- সালমা ওসমান লিপি

রাজনৈতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ): বিএনপি আন্দোলনের নামে জ্বালাও পোড়াও করেছে। শত শত মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মেরেছে। স্কুল পুড়িয়ে দিয়েছে। গবাদি পশুও আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে। বোবা প্রাণীও তাদের ওই নৃশংসতা থেকে রেহাই পায় নাই। এতো অপরাধ করেও তারা এখন মিথ্যাচার করছে। তারা এখন বলছে গত দশ বছর যাবত নাকি তারা ভোট দিতে পারে নাই। অথচ ২০০৮ সালে বিএনপি ভোটে দাড়িয়েছিলো। কিন্তু তখন জনগণ তাদের প্রত্যাক্ষাণ করেছে। ২০১৪ সালে তারা ভোটে অংশগ্রহন করে নাই। তাহলে এর দায়ভার কার। অথচ তারা এখন এসব মিথ্যাচার করে চলছে।

মঙ্গলবার বিকেলে নাসিক ১০ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে উঠান বৈঠকে এসব কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের সহধর্মীনি এবং নারায়ণগঞ্জ মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি এ কথা বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, বিগত সময়ে দেশে যে পরিমান উন্নয়ণ হয়েছে তা এখন দৃশ্যমান। আপনারা দেখেছেন এই সরকার কি পরিমান উন্নয়ন কর্মকান্ড করেছে। স্কুল কলেজ, মাদ্রাসা, দেশের বিদ্যুৎ, রাস্তাঘাটসহ সব কিছুরই উন্নয়ন হয়েছে। তাই এখন বিচার বিবেচনা সব আপনাদের কাছে। আপনারা কাকে ভোট দিবেন। দেশের জন্য কাজ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। আর আপনাদের এই এলাকার জন্য কাজ করেছেন, করছেন এবং ভবিষ্যতেও কাজ করবেন আপনাদের সাংসদ শামীম ওসমান। তাই পছন্দ আপনাদের, কাকে আপনারা জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন। যিনি কাজ করেছেন এবং করতে চান তাকে? নাকি যারা নির্বাচিত হয়েও কোন কাজ করে নাই তাদেরকে নির্বাচিত করবেন। যদি আপনারা উন্নয়ণ দেখতে চান তাহলে তাকেই ভোট দিবেন যিনি আপনাদের পাশে সব সময় থেকেছেন।

আপনাদের সাংসদ শামীম ওসমান ১৯৯৬ সালে সারা দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কাজ করেছেন। ২০১৪ সালে নির্বাচিত হওয়ার পর প্রায় সাড়ে ৭হাজার কোটি টাকার কাজ করেছেন। এসব উন্নয়নই এখন দৃশ্যমান। আপনারা দেখেছেন তার এই উন্নয়ন কাজগুলো। তাই এখন বিবেচনাও আপনাদের কাছে। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন নাসিক ১০ ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক নুর আলী, নাসিক প্যানেল মেয়র-২ মতিউর রহমান, নাসিক প্যানেল মেয়র-৩ মনোয়ারা বেগম, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম, নাসিক ১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইফতেখার আলম খোকন, নাসিক ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা, আদমজী আঞ্চলিক শ্রমিক লীগ সহ-সভাপতি আবু কালাম, আওয়ামীলীগ নেতা কাদির মোল্লা, নাসিক ১০ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ কোষাধক্ষ্য মোঃ শামীম, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কাজী আমির হোসেনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।