একদশক পরে খালেদা জিয়ার কারাগারে ঈদ উদযাপন

 

আজকের নারায়নগঞ্জঃ এক দশক আগে ২০০৭ সালে এক-এগারোর সময়ে রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের প্রেক্ষাপটে গ্রেপ্তার হয়ে বিশেষ কারাগারে ঈদ কেটেছে খালেদা জিয়ার। এক দশক পর আবারো কারাগারে ঈদ কাটবে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসনের।

আগের বছর ঈদুল আজহায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে লন্ডনে চিকিৎসা নিতে গিয়ে সেখানে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ছিলেন বড় ছেলে তারেক রহমান ও ছোট ছেলে আরাফাত রহমানের পরিবারের সদস্যরা।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে সংসদ ভবন এলাকার বিশেষ কারাগারে আটক থাকার পর ২০০৮ সালের ১১ সেপ্টেম্বর মুক্তি পান খালেদা জিয়া। এর মধ্যে ২০০৭ সালের দুটি ঈদ কারাগারে কেটেছে তার। খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক জীবনে সেটিই ছিলো প্রথম কারাগারে ঈদ। এবার দ্বিতীয় দফায় কারাগারে ঈদ কাটবে বিএনপি নেত্রীর।

প্রতিবছর ঈদুল ফিতরে রাজধানীর বিশেষ কোনো জায়গায় বিশিষ্ট নাগরিক, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক ও সর্বসাধারণের সঙ্গে ঈদের কুশল ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন বিএনপি নেত্রী। তবে কারান্তরীণ থাকায় দলটির এই ধরনের কোনো কর্মসূচি নেই বলে জানিয়েছেন জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি জানান, ‘পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বিএনপি মহাসচিবসহ জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যবৃন্দ, ভাইস চেয়ারম্যানবৃন্দ, উপদেষ্টামণ্ডলী, যুগ্ম মহাসচিববৃন্দ, সম্পাদকমণ্ডলী, নির্বাহী কমিটির সদস্যবৃন্দ এবং দলের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের মাজারে বেলা সাড়ে ১১ টায় পুষ্পার্ঘ অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করবেন। এরপর নেতৃবৃন্দ দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে যাবেন।’