শিল্পকলা জাতিকে বিশ্বমানচিত্রে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করে- ত্রাণ মন্ত্রী

 

মো. দ্বীন ইসলাম, মতলব উত্তর (চাঁদপুর) : দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি বলেছেন, দেশ-কাল-সংস্কৃতি ভেদে শিল্পীর স্বরূপ ও কর্মকান্ড ভিন্নতর হতে পারে। তবে শিল্পের নান্দনিকতা ও আবেদন সীমাহীন এবং চিরন্তন। বৈশ্বিক মাত্রায় উত্তরণের পাশাপাশি নিজেদের শিল্পকর্মে জাতীয় সংস্কৃতি ও কৃষ্টি তুলে ধরতে শিল্পীদের প্রতি আহবান জানান তিনি।
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে মতলব উত্তর উপজেলার গজরা বাজারে নির্মিত শিল্পকলা একাডেমী উদ্বোধন উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
ত্রাণ মন্ত্রী মায়া বলেন, জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠন, বুদ্ধি বৃত্তিক চর্চা ও প্রগতিশীল সমাজ নির্মাণেও শিল্প-সংস্কৃতি অন্যতম প্রধান হাতিয়ার। একটি জাতির তরুণ ও যুবসমাজের মাঝে শৃঙ্খলা, জাতীয়তাবোধ, দেশপ্রেমের চেতনা বিকাশসহ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য জাগিয়ে তুুলতে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের ভ‚মিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দেশে-দেশে, মানুষে-মানুষে মৈত্রীর বন্ধন ও সম্পর্কের উন্নয়নে শিল্পকলার অবদান ব্যাপক। শিল্পকলা একটি দেশ ও জাতিকে বিশ্ব মানচিত্রে গৌরব ও মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করতে পারে।
মন্ত্রী আরো বলেন, জাতি গঠনেও শিল্প-সংস্কৃতির ভ‚মিকা অপরিসীম। বাঙালি জাতির অর্জনের পেছনে শিল্পী ও সংস্কৃতিকর্মীদের রয়েছে অসামান্য অবদান। মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিসংগ্রামসহ প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে এ দেশের শিল্পী সমাজের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। জাতির যে কোন প্রয়োজনে বা সংকটময় মুহ‚র্তে সংস্কৃতিকর্মীরা সবসময় সাহসী ভ‚মিকা পালন করেছে। অর্জন করেছে দেশবাসীর অকুণ্ঠ ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মাহফুজ মিয়া’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- ত্রাণমন্ত্রীর সহধর্মিনী পারভীন চৌধুরী রিনা, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতা সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ কুদ্দুস, ছেংগারচর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব রফিকুল আলম জর্জ, উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি শহীদ উল্লাহ প্রধান, গজরা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. হানিফ দর্জি প্রমুখ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সহকারি কমিশনার (ভূমি) শুভাশিষ ঘোষ, জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম হাওলাদার, উপজেলা চেয়ারম্যান কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও মোহনপুর ইউপি’র স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হাজী সামছুল হক চৌধুরী বাবুল, আ.লীগ নেতা বোরহান উদ্দিন মিয়া, কাজী মিজানুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান জহির, সাধারণ সম্পাদক কাজী শরীফ, জহিরাবাদ ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি গাজী মুক্তার হোসেন, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আবু সালেহ মো. খুরশীদ, সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম ডাবলু, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মিনহাজ উদ্দিন খান প্রমুখ।
আলোচনা সভা শেষে স্থানীয় শিল্পীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন গ্রাম থেকে বিপুল সংখ্যক দর্শক উপস্থিত হয়।