কারামুক্ত হয়েই আখিকে আত্নহত্যায় বাধ্য করলো বখাটে মনির

সোনারগাঁ(আজকের নারায়নগঞ্জ): সোনারাগাঁয়ে বখাটের হাতে নির্যাতিত ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী আখিঁ আক্তার (১৫) ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বধুবার গভীর রাতে উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের নানাখী গুলনগর গ্রামে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহতের পরিবার সূত্র জানা গেছে , গত ৭ মাস ধরে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে নানাখী মধ্যপাড়া গ্রামের মনির হোসেনের বখাটে ছেলে সাকিব স্কুল ছাত্রী আখিঁ আক্তারকে উত্তক্ত্য করে আসছে। বখাটে সাকিবের রাস্তা ঘাটে এ ধরনের আচরণ অতিষ্ট ওই স্কুল ছাত্রী। গত ৮অক্টোবর স্কুলে যাওয়ার সময় কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে ওই ছাত্রীকে স্কুলের সামনে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে মারধর করে মারাত্মক ভাবে স্কুল ছাত্রীকে আহত করে। পরে আহত ছাত্রীর সহপাঠিরা তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

গত ১৫অক্টোবর সোনারগাঁ থানা পুলিশের সহযোগিতায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শাহীনুর ইসলাম ইভটিজিংয়ের অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বখাটে সাকিবকে ১৫ দিনের কারাদন্ড প্রদান করেন।

কারাঘর থেকে ছাড়া পেয়ে গত বধুবার রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে বখাটে সাকিব ফোন করে আখিঁ আক্তারকে প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করে। হুমকির পড় আঁখি রাতের কোন এক সময় ঘরের আড়ার সাথে ওরনা পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত আখিঁ আক্তার সাদিপুর ইউনিয়নের পঞ্চমীঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ও নানাখী গুলনগর গ্রামের শাহাজাহানের মেয়ে ।

সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোরশেদ আলম বলেন, নিহত আখিঁ আক্তারের লাশ উদ্ধার করে জেলা হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।