পোড়া মবিল,গাড়ী ভাঙচুর সম্পর্কে পলাশ যা বললেন

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ):  কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসেবে ২য় দিনেও সদর উপজেলার পাগলায় শান্তিপূর্ণ ভাবে কর্মবিরতি পালন করেছে পরিবহন শ্রমিকরা। পরিবহন আইন ২০১৮ এর সংশোধন ও ৮ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে দেশ ব্যাপি পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকা ৪৮ ঘন্টা কর্মবিরতি কর্মসূচীর শেষ দিন ছিল সোমবার (২৯ অক্টোবর) ।

এদিকে পাগলা এলাকায় অন্দোলনরত পরিববহন শ্রমিকদের জন্য রান্না করা খাবারের আয়োজন করে বাংলাদেশ আন্তঃজেলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন পাগলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

পাগলা ট্রাক টার্মিনাল এলাকায় রান্না করা খাবার বিতরন শুরুর পূর্বে পাগলা শাখার সভাপতি ও বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় নেতা এবং শ্রমিকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যান বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব কাউসার আহম্মেদ পলাশ বলেন, আমরা নিয়মতান্ত্রিক ভাবে সাংগঠনিক প্রক্রিয়ায় শান্তি প্রিয় আন্দোলন করছি। আমরা ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দরা কর্মবিরতি পালনের নির্দেশ দিয়েছি। কিন্তু রাজপথে নেমে আসার কোন নিদের্শ দেওয়া হয়নি।

তিনি বলেন, যারা রাজপথে এসে পোড়া মবিল মাখিয়ে দিয়েছে, গাড়ি ভাংচুর করেছে, এ্যাম্বুলেন্স, সরকারি গাড়ি ও সাংবাদিকদের গাড়ি চলাচলে বাধা দিয়েছে। তারা পরিবহন সেক্টরের কেউ না। আমরা ওদের সর্মথন করিনা। ওরা পরিবহন শ্রমিকদের শত্রু। পরিকল্পিত ভাবে আমাদের আন্দোলনকে নস্যাত করার জন্য এবং জাতির কাছে বিতর্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য এ ধরনের ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে।

তিনি পরবর্তী কর্মসুচীর বিষয়ে বলেন, যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জাতি উদ্দেশ্যে বলেছেন, সংসদ অধিবেশন শেষ তাই এই মূহুর্তে আইন সংশোধন করা যাবে না। তাই আগামী সংসদে কিভাবে পরিবহন আইন সংশোধন হবে ও আমাদের দাবি আদায় হবে এ নিয়ে ফেডারেশনে মিটিং করে পরবর্তী কর্মসুচীর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। পাগলা এলাকায় শান্তিপূর্ণ ভাবে কর্মবিরতি কর্মসূচী পালন করায় সকলের প্রতি ধন্যবাদ জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আন্তঃজিলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন পাগলা শাখার কার্যকরি সভাপতি বাবুল আহম্মেদ, সহ-সভাপতি আ: করিম তপু, সম্পাদক জজ মিয়া, যুগ্ম সম্পাদ আলম মিয়া, সহ-সম্পাদক ফিরোজ মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক বশির আহম্মেদ, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক উবাইদুর রহমান উবায়েদ, অর্থ সম্পাদক ইমরান হোসেন, দপ্তর সম্পাদক শফিকুর রহমান, প্রচার সম্পাদক হারুন মিয়া, সমাজ কল্যান সম্পাদক হারুন অর রশিদ, বাংলাদেশ আন্তঃজিলা ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়ন দক্ষিন বঙ্গে লাইন সম্পাদক আবুল হোসেন, ইউনাইটেড ফেডারেশন গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স এর সভাপতি শাহাদাত হোসেন সেন্টু, সাধার সম্পাদ কবির হোসেন রাজু, কুতুবপুর ইউনিয়ন ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম রাহাত, আজিজুল হক, সাকিল, ইমান আলী। আন্তঃজিলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক নাছির উদ্দিন, কার্যকরি কমিটির সদস্য নুর ইসলাম, মোঃ ফারুক আকন ও মোবারক হোসেন সহ আরো অনেকে।