না‘গঞ্জে শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন, বর্বরতার দায়ভার নেবে কে ?

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ  পরিবহন ধর্মঘটে শিক্ষার্থীদের হেনস্তা ও মৌলভী বাজারে এম্বুলেন্স আটকিয়ে শিশু হত্যার প্রতিবাদে চাষাড়ায় আন্দোলনে নেমেছে নারায়ণগঞ্জের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২৯ অক্টোবর) সকাল ১০ টা থেকে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদী ফেস্টুনসহ নারায়ণগঞ্জ শহীদ মিনারে অবস্থান নেয়। অবস্থান শেষে মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের হেনস্তা ও মৌলভী বাজারে এম্বুলেন্স আটকিয়ে শিশু হত্যার প্রতিবাদে তারা চাষাড়া চত্ত্বরে মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনকালে শিক্ষার্থীরা বলেন,নিজেদের ক্ষমতা দেখানোর জন্য যে ধর্মঘট ডাকা হলো এবং এ ধর্মঘটে বর্বরতা মধ্যে যে ক্ষয়ক্ষতি হলো তার দায়ভার কে নেবে? কোন শ্রমিক নেতা নেবে? কোন পরিবহণ মালিক নেবে? আমরা এর জবাব চাই। এ ধর্মঘটের মধ্য দিয়ে নির্বাচনের আগে তারা তাদের ক্ষমতার প্রদর্শন করছে। তারা দেখাতে চাচ্ছে, তারা চাইলেই সরকারকে, দেশকে জিম্ম করতে পারে।

শিক্ষার্থীরা বর্বরতার বিচার দাবী করে বলেন, পরিবহন শ্রমিক ধর্মঘটে আমরা দেখলাম, কিভাবে তারা সবার সাথে বর্বর আচরণ করলো। কিভাবে নারায়ণগঞ্জ মহিলা কলেজের ছাত্রীদের গায়ে কালি মেখে দিল। কলেজ ছাত্রীদের বাস আটকে চালককে হেনস্থা করা হলো। মেয়েরা জবাব দিতে চাইলে তাদের উপর চড়াও হলো। কলেজ বাসের কাচ ভেঙ্গে তার মধ্য দিয়ে পোড়া মবিল ছুড়ে মেরে তাদের হেনস্তা করলো। মৌলভীবাজার এ্যম্বুলেন্স আটকে যে শিশুটিকে হত্যা করা হলো। এর দায় কে নেবে? আমরা এর বিচার চাই। প্রশাসন চাইলেই তাদের চিহ্নিত করে সুষ্ঠ বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে পারে।

মানববন্ধন শেষে শিক্ষার্থীরা একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি শহীদ মিনার থেকে নগরীর কালিবাজার এলাকাঘুরে প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।